আম বয়ানে শুরু বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব

শুক্রবার দুপুর দেড়টায় টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে হবে দেশের সবচেয়ে বড় জুমার জামাত।

গাজীপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Feb 2024, 04:02 AM
Updated : 2 Feb 2024, 04:02 AM

শীতের ভোরে আম বয়ানের মধ্য দিয়ে টঙ্গীর তুরাগ তীরে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আনুষ্ঠানিকতা।

শুক্রবার ফজরের নামাজের পর তাবলিগ জামাতের এই বিশ্ব সম্মিলনের কার্যক্রম শুরু হয়। রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষে ৯ থেকে ১১ জানুয়ারি হবে দ্বিতীয় পর্ব।

এবার প্রথম পর্বের ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন কাকরাইল মসজিদের খতিব মুহাম্মাদ জুবায়েরের অনুসারীরা। আর দিল্লির সাদ কান্ধলভীর অনুসারীরা অংশ নেবেন দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমায়।

বৃহস্পতিবার থেকেই মূল মঞ্চে প্রাথমিক বয়ানের কাজ শুরু করেছেন তাবলিগ জামাতের মুরুব্বিরা। প্রাথমিক বয়ান করেন দিল্লির মাওলানা আহমদ লাট, তা বাংলায় তর্জমা করেন মাওলানা ওমর ফারুক। ময়দানে আগতরা নিজেদের প্রস্তুতির পাশাপাশি খিত্তায়-খিত্তায় বসে সেসব বয়ান শোনেন। 

ইজতেমার প্রথম পর্বের মিডিয়া সমন্বয়ক মো. হাবিবুল্লাহ রায়হান জানান, শুক্রবার ফজরের পর পাকিস্তানের মাওলানা আহমদ বাটলারের আম বয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমার মূল কার্যক্রম শুরু হয়। সকাল ১০টা থেকে পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হক বিশ্ব ইজতেমার তালিম দেবেন।

শুক্রবার দুপুর দেড়টায় টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে হবে দেশের সবচেয়ে বড় জুমার জামাত। এ জামাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশে তাবলীগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বি মাওলানা জুবায়ের। 

জুমার পর মাওলানা ওমর ফারুক, আছরের পর মাওলানা জুবায়ের এবং মাগরিবের পর ভারতের মাওলানা আহমদ লাট বয়ান করবেন। বিদেশ থেকে যারা ইজতেমায় এসেছেন, তাদের খিত্তার পূর্ব পাশের মঞ্চ থেকে তাবলীগ জমাতের শীর্ষ মুরুব্বিরা বয়ান করবেন। 

ইজতেমায় যোগ দিতে সারা দেশের পাশাপাশি বিদেশ থেকেও তাবলিগ জামাতের অনুসারীরা টঙ্গীর তুরাগ তীরে আসছেন দুদিন আগে থেকেই। বাস, ট্রাক, প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস, পিকআপে করে দলে দলে ইজতেমায় আসছেন তারা।

তাদের কাঁধে বা পিঠে ঝুলছে ময়দানে অবস্থানের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। ভারী ব্যাগ মাথায় নিয়েও অনেকে আসছেন ময়দানে। রোববার আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মানুষের এ আগমন অব্যাহত থাকবে।

তাদের সুশৃঙ্খলভাবে ময়দানে পৌঁছে দেওয়া এবং সড়কের পাশে অবস্থান নিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে তৎপর দেখা গেছে।

১৬০ একর আয়তনের ইজতেমা মাঠের কিছু অংশে চটের প্যান্ডেল টাঙানো হয়েছে। ৬৪ জেলার মানুষের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা খিত্তা। ময়দানের বাকি অংশ ইজতেমায় যোগ দিতে আসা মানুষ নিজস্ব ব্যবস্থানায় ছামিয়ানা টাঙিয়ে নিয়েছেন।

তবে বিদেশি মেহমানদের জন্য টিন দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে আধুনিক সুবিধা সম্বলিত আবাসস্থল। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিভিন্ন দেশের দেড় হাজারের বেশি বিদেশি মেহমান ইজতেমায় এসেছেন বলে জানিয়েছেন গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মো. মাহবুব আলম।

যারা ময়দানে জায়গা পাচ্ছেন না তারা আশপাশের সড়ক ও খালি জায়গায় ত্রিপল ও পলিথিন দিয়ে অস্থায়ী তাঁবু বানিয়ে অবস্থান নিচ্ছেন। সেখানেই চট বিছিয়ে শীতের কাপড় নিয়ে বসেছেন তারা।

এর মধ্যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার মাগরিবের নামাজের পরপরই ইজতেমা মাঠে বৃষ্টি শুরু হলে ভোগান্তিতে পড়ে কয়েক লাখ মানুষ। শামিয়ানা চুঁইয়ে পানি পড়ে অনেকের বিছানাপত্র ভিজে যায়। মূল মঞ্চে মুরব্বিদের বয়ান বন্ধ হয়ে যায়। সবাইকে ধৈর্য ধরে খিত্তায় অবস্থান করার কথা বলেন আয়োজকরা। টানা ২৫ মিনিট ভুগিয়ে সেই বৃষ্টি থামে।

নেত্রকোণা থেকে ২৪ সাথী নিয়ে ইজতেমায় এসেছেন ইউনুছ আলী। তিনি বলেন, “গ্রামের মসজিদ থেকে প্রতি বছরই দলবদ্ধ হয়ে তাবলিগ জামাতের ইজতেমায় আসি আমরা। এবারও এসেছি। তিনদিন এখানে থাকব, ইবাদত-বন্দেগি করে কাটাব।”

মুন্সীগঞ্জের ইছাপুরা থেকে ২০ সাথী নিয়ে এসেছেন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা হায়দার আলী। তিনি বলেন, “সড়ক পথে কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়াই ইজতেমা ময়দানে এসে পৌঁছেছি। তবে মাঠে অন্য বছরের তুলনায় এবার চাপ অনেক বেশি মনে হচ্ছে।”

মানুষের ভিড়ে কামারপাড়া সড়ক, বাটা রোড, টিএন্ডটি রোড ও এর আশপাশের সড়কে সাধারণ যানবাহন বন্ধ হয়ে গেছে। এসব সড়ক দিয়ে শুধু বিদেশি মেহমানদের গাড়ি বিশেষ ব্যবস্থায় চলাচল করতে দেখা গেছে।

ইজতেমাকে কেন্দ্র করে মাঠের আশপাশে গড়ে উঠেছে নানা ধরনের পণ্যের অস্থায়ী দোকান ও হোটেল। এসব দোকানে বিক্রির ধুম পড়েছে। 

ইজতেমা ঘিরে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে জানিয়ে গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মো. মাহবুব আলম বলেন, তাদের ছয় সহস্রাধিক পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি র‌্যাব, ঢাকা মহানগর পুলিশ ইজতেমায় দায়িত্ব পালন করছেন। ময়দানের চারপাশে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে অবস্থান নিয়ে আছেন তারা।

তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধের কারণে গত কয়েক বছর ধরে বিশ্ব ইজতেমা হচ্ছে দুই পর্বে, দুই পক্ষের অনুসারীদের নিয়ে আলাদাভাবে। ১১ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমা।  

আরও পড়ুন

টঙ্গীতে ইজতেমায় আসা আরও একজনের মৃত্যু
ইজতেমায় বৃষ্টির বাগড়ায় দুর্ভোগ, বয়ান বন্ধ

ইজতেমা ময়দানে ঠাঁই নেই, সড়কেই পড়ছে তাঁবু

ইজতেমায় পলিথিন শিট আর প্লাস্টিকের বস্তার কদর, দামও বেশি

ইজতেমা: তুরাগ তীরের ঢল ময়দান ছাপিয়ে ভবনের ছাদে

দাঙ্গা-হাঙ্গামাকারীরা তাবলিগ জামাতের অনুসারী হতে পারে না: ধর্মমন্ত্রী

বিশ্ব ইজতেমা: শুরুর আগেই পূর্ণ ময়দান, মানুষ বসছে সড়কের পাশে

টঙ্গীতে ইজতেমায় আসা দুইজনের মৃত্যু

ইজতেমার প্রথম পর্ব: জোবায়ের পক্ষের অনুসারীরা আসছেন

ইজতেমা ঘিরে নাশকতার আশঙ্কা নেই: র‌্যাব ডিজি

ইজতেমা ঘিরে গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান আইজিপির

ইজতেমা: গাড়ি পার্কিং ও চলাচলে পুলিশের নির্দেশনা

ইজতেমায় কোনো নিরাপত্তা হুমকি নেই: র‌্যাব

বিশ্ব ইজতেমা: পুলিশের একগুচ্ছ নির্দেশনা

ইজতেমা: শামিয়ানা অসম্পূর্ণ, আগতদের চট নিয়ে আসার পরামর্শ

এবার ইজতেমায় হকার বসতে পারবে না: পুলিশ

টঙ্গীতে স্বেচ্ছাশ্রমে চলছে বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতি, প্রায় ৮০ ভাগ কাজ শেষ

ইজতেমায় চলবে ১১ জোড়া বিশেষ ট্রেন

ইজতেমা শেষে ‘ভাঙচুর ছাড়াই’ মাঠ বুঝিয়ে দেওয়ার আহ্বান

বিশ্ব ইজতেমা শুরু ২ ফেব্রুয়ারি, এবারও হবে ২ পর্বে