এবার ইজতেমায় হকার বসতে পারবে না: পুলিশ

“সুন্দরভাবে ইজতেমা সম্পন্ন করার লক্ষ্যে দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে।”

গাজীপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Jan 2024, 01:35 PM
Updated : 28 Jan 2024, 01:35 PM

এবার ইজতেমাস্থল ও এর আশপাশে কোথাও হকার বসতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মো. মাহবুব আলম বলেন, “কারো সহযোগিতায় যদি হকার বসে তাহলে হকার এবং আশ্রয়দাতা বা সহায়তা দানকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

রোববার সকালে টঙ্গীর ইজতেমায় আইনশৃঙ্খলার চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা ও ময়দান পরিদর্শন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে কমিশনার এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “কামারপাড়া রোডসহ ইজতেমা এলাকায় স্থায়ী দোকানি যারা আছেন তারা যদি দোকানের সামনে কোনো হকার বা অবৈধ দোকান বসান তবে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

“ইজতেমায় দুই পক্ষের মধ্যে বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। প্রতি বছর তাদের মধ্যে যে দাবি-দাওয়া নিয়ে সমস্যা হয় সে ব্যাপারে তাদের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে।

“প্রথম পক্ষ ইজতেমা শেষ হওয়ার পর নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কোনো প্রকার ভাঙচুর ছাড়া মাঠের শামিয়ানা প্রশাসনের কাছে বুঝিয়ে দিয়ে ময়দান ত্যাগ করবে। আবার একইভাবে দ্বিতীয় পক্ষও তাদের ইজতেমা শেষে নির্ধারিত সময়ে প্রশাসনের কাছে মাঠ ও সরঞ্জামাদি শান্তিপূর্ণভাবে হস্তান্তর করবে।”

Also Read: টঙ্গীতে স্বেচ্ছাশ্রমে চলছে বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতি, প্রায় ৮০ ভাগ কাজ শেষ

কমিশনার বলেন, “দুপক্ষের মধ্যে সুন্দরভাবে ইজতেমা সম্পন্ন করার লক্ষ্যে সমঝোতা হয়েছে। আজকের অনুষ্ঠানে ইজতেমার আগতদের সব ধরনের নিরাপত্তার বিষয় নিয়ে পর্যালোচনা হয়েছে।”

এবারের ইজতেমায় গাজীপুর মহানগরের ছয় সহস্রাধিক পুলিশ সদস্য ছাড়াও র‌্যাব, ডিএমপি ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানান মাহবুব আলম।

ইজতেমার প্রস্তুতির পর্যালোচনা অনুষ্ঠানে স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম, জিএমপি উপ-কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ, মো. ইব্রাহিম খান, ডিএমপির প্রতিনিধি, ইজতেমার দুই পক্ষের মুরুব্বি ও প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

তাবলিগ জামাতের সবচেয়ে বড় বার্ষিক সম্মিলনের এ আয়োজন আগেরবারের মতই হবে দুই পর্বে।

গাজীপুরের টঙ্গীতে তুরাগ তীরে প্রথম পর্বে ইজতেমা হবে ২ থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি; দ্বিতীয় পর্ব হবে ৯ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি।

প্রথম পর্বের ইজতেমায় মাওলানা জোবায়ের পক্ষের অনুসারীরা এবং দ্বিতীয় পর্বে সাদ কান্ধলভীর অনুসারীরা অংশ নেবেন।

আরও পড়ুন

ইজতেমায় চলবে ১১ জোড়া বিশেষ ট্রেন

ইজতেমা শেষে ‘ভাঙচুর ছাড়াই’ মাঠ বুঝিয়ে দেওয়ার আহ্বান

বিশ্ব ইজতেমা শুরু ২ ফেব্রুয়ারি, এবারও হবে ২ পর্বে