ঢাকা বার নির্বাচন: নির্বাচন কমিশনারকে নিয়ে আপত্তি বিএনপিপন্থিদের

সোমবার বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বার কাউন্সিল গেইটে গিয়ে স্মারকলিপি দেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সদস্যরা।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Jan 2023, 07:53 AM
Updated : 24 Jan 2023, 07:53 AM

ঢাকা আইনজীবী সমিতির আসন্ন নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে ঢাকা মহানগর দায়রা আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবুর মনোনয়নের বিরুদ্ধে বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে বিএনপিপন্থি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম।

ফোরামের ঢাকা বার ইউনিটের সভাপতি এম মাসুদ আহমেদ তালুকদার জানান, সোমবার দুপুরে এই সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বার কাউন্সিল গেইটে গিয়ে তারা স্মারকলিপি দেন।

বার কাউন্সিলের সচিব ড. ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার আইনজীবীদের স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।

মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেন, “ঢাকা আইনজীবী সমিতির আইনজীবীরা প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে আবদুল্লাহ আবুকে মানে না এবং তার পরিচালনায় নির্বাচন হতে দেবে না।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. ওমর ফারুক ফারুকী বলেন, এ দাবিতে গত ১৯ জানুয়ারি তারা সংবাদ সম্মেলন করেছেন, তার আগে ঢাকা জজ কোর্ট, সিএমএম কোর্ট ও আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে সমাবেশ, মিছিল ও লিফলেট বিতরণ করেছেন।

সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি এ জে মোহাম্মদ আলী, মহাসচিব ও বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি জয়নুল আবেদীন, বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন ও ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, ঢাকা বারের সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম, ইকবাল হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ মিয়া আলম, হযরত আলী, আইনজীবী ফোরামের সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম সজল, আইনজীবী মোহাম্মদ আলী, মনির হোসেন, মো. আক্তারুজ্জামান, সুপ্রিম কোর্ট বারের ট্রেজারার মো. কামাল হোসেন, সাবেক ট্রেজারার রাগীব রউফ চৌধুরী, সাবেক সহ-সম্পাদক মোরশেদ আল মামুন লিটন, সুপ্রিম কোর্ট বারের বর্তমান সহ-সম্পাদক মো. মাহবুবুর রহমান খান, সগীর হোসেন লিয়ন, জহিরুল ইসলাম সুমন, সৈয়দ মো. তাজরুল হোসেন, মাহফুজুর রহমান মিলন, শহিদুল ইসলাম সপু, গাজী তৌহিদুল ইসলাম, কে আর খান পাঠান, সালমা সুলতানা, মাসুদ রানা, মো: মাকসুদ উল্লাহ, এ কে এম খলিলুল্লাহ কাসেম মু. কাইয়ুম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, “গঠনতন্ত্র মোতাবেক সমিতির নির্বাচনকালে একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্যান্য কমিশনারদের নিয়োগ প্রদান করে কমিশন গঠন করা হয়। সমিতির সদস্যদের সরাসরি ভোটে অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচনের মাধ্যমে সমিতির নির্বাহী কমিটি নির্বাচিত করা হয়।

“পরিতাপের বিষয় হল, বিগত ৩ বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে নির্বাচনে নানারূপ বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। নির্বাচন কমিশনের বির্তকিত ভূমিকা নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। ঢাকা আইনজীবী সমিতির ১৩৪ বছরের অর্জিত গৌরব কোনো মহল বিশেষের কারণে হারিয়ে যাবে তা হতে পারে না।”

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম বলছে, “২০২১-২০২২ এবং ২০২২-২৩ সালে সমিতির নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন ঢাকা মহানগর পিপি আব্দুল্লাহ আবু। প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তিনি সম্পূর্ণ ব্যর্থ ও বিতর্কিত হিসেবে প্রমাণ করেছেন নিজেকে।

“নির্বাচনে জালভোট, ব্যালট পেপার ছিনতাই, ব্যালট পেপার বাইরে থেকে সিল মেরে আনা ভোট গণনায় কারচুপি ও পরাজিত প্রার্থীদের নির্বাচিত ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের সদস্যদের মারধর, সিনিয়র আইনজীবীদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত, আংশিক ভোট গণনা করে প্রার্থী নির্বাচিত ঘোষণাসহ সব অপকর্মের সঙ্গে প্রধান নির্বাচন কমিশনার আব্দুল্লাহ আবুসহ তার আস্থাভাজন কমিশনাররা প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন।”

এ বিষয়ে আব্দুল্লাহ আবুর ভাষ্য বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জানতে পারেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক