আরিয়ানের গ্রেপ্তার নিয়ে শাহরুখ যা বললেন

শাহরুখ বলেন, " কোভিডে আগে এবং মাঝে অনেকেই আমার কেরিয়ার শেষ হয়ে যাওয়ার শ্রদ্ধার্ঘ্যও লিখে ফেলেছিলেন!’’

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Jan 2024, 11:11 AM
Updated : 12 Jan 2024, 11:11 AM

মাদককাণ্ডে ছেলের হাজতবাসের দুবছরের মধ্যে একটিবারও ঘটনাটি নিয়ে কথা বলতে শোনা যায়নি বলিউডি কিং খান শাহরুখ খানকে। এরমধ্যে ব্যর্থতার অধ্যায়ে ইতি টেনে স্বমহিমায় ফিরেছেন নায়ক। পুত্র আরিয়ান খানও প্রবেশ করেছেন নির্মাতার জীবনে। অবশেষে শাহরুখ বললেন জীবনের সেই তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা।

‘পাঠান’, ‘জওয়ান’ ও ‘ডানকি’ দিয়ে গত বছর শেষ করেছেন শাহরুখ। আনন্দবাজার বলছে দুটি ব্লকবাস্টার এবং আরেকটি দারুণ চিত্রনাট্যের সিনেমা দিয়ে বলিউডকে শাহরুখ কেবল ডুবতে বসা সুদিনই ফিরিয়ে এনে দেননি, এই অভিনেতার হাত ধরে বক্স অফিসে এসেছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি রূপি। এই সাফল্যে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম 'সিএনএন নিউজ–১৮'র ‘ইন্ডিয়ান অব দ্য ইয়ার’ হয়েছেন শাহরুখ।

সেই পুরস্কার গ্রহণ করে শাহরুখ প্রায় ১০ মিনিট কথা বলেছেন। সেই কথায় কারোর নাম বা কোনো ঘটনার কথা উচ্চারণ না করলেও যা বলেছেন, তাতে প্রকাশ হয়েছে আরিয়ানের মাদককাণ্ডের সময়ের তার অসহায়ত্বের কথা। বলেছেন ক্যারিয়ারের 'নাজুক' সময়ের কথা।

শাহরুখ তার কথার শুরুতেই বলেন, ‘যথেষ্ট শিক্ষা হয়েছে।’

সেই শিক্ষা কিরকম সেটা নিয়ে শাহরুখ বলেন, ‘গত চার-পাঁচ বছর আমাদের পরিবারের জন্য বেশ কঠিন ছিল। আমি জানি, কোভিডের কারণে নিশ্চয়ই আরও অনেকের ক্ষেত্রেও তাই। এর আগে আমার সব সিনেমা ফ্লপ করে। অনেকেই আমার কেরিয়ার শেষ হয়ে যাওয়ার শ্রদ্ধার্ঘ্যও লিখে ফেলেছিল!’’

বলতে বলতে শাহরুখ সেইসব সিনেমা বিশারদদের প্রসঙ্গে স্বভাবসুলভ রসিকতায় তাদেরকে ‘মূর্খ’ বলেও সম্বোধন করেন।

২০১৮ সালে 'জিরো' সিনেমা ফ্লপ করায় বিরতির ঘরে দোর দিয়েছিলেন শাহরুখ। এরপর ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে ফেরেন 'পাঠান' নিয়ে। বিরতির ওই সময়ে অনেক সিনেমার চিত্রনাট্য পড়েছেন শাহরুখ। প্রত্যাবর্তনের জন্য নিজেকে তৈরি করতে সময় নিয়েছেন।

'সিএনএন নিউজ–১৮'র অনুষ্ঠানে ব্যক্তিগত জীবনের প্রসঙ্গ তোলেন শাহরুখ।

তিনি বলেন, ‘‘ এই সময়ের মধ্যে আমার ব্যক্তিগত জীবনে কিছু অপ্রীতিকর এবং বিরক্তিকর ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু তাতে আমার একটা শিক্ষা হয়েছে। সেটি হল চুপচাপ থাকো, একদম নিস্তব্ধে কাজ করো, নিজের আত্মসম্মান বজায় রেখে চুপচাপ পরিশ্রম করে যাও। কারণ, অনেক সময় যখন মনে হয়, জীবনে সব ভালই চলছে। কিন্তু ওই ভালো সময়ে জীবন কীভাবে যে পরীক্ষা নেবে, বুঝতেও পারবেন না! "

এমন পরীক্ষার সময় আরও সততার এবং মঙ্গলের আশা নিয়ে নিজের গল্প নিজের লেখা উচিত বলে জানান শাহরুখ।

সরাসরি না বললেও তিনি যে ছেলের মাদককাণ্ড নিয়ে কথা বলেন, তা স্পষ্ট হয়ে যায়।

২০২১ সালের অক্টোবরে মুম্বাইয়ের এক প্রমোদতরীর পার্টি থেকে গ্রেপ্তার হন শাহরুখের বড় ছেলে আরিয়ান। ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো-এনসিবির অভিযানে আরিয়ান খানসহ মোট আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সে সময়। ছেলের জামিন করাতে বহু চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন শাহরুখ, ফলে একমাস হাজতে থাকতে হয় আরিয়ানকে।

পরে এই মামলায় অভিযোগপত্রে আসামির তালিকা থেকে আরিয়ানের নাম বাদ দেওয়া হয়। এবং অভিযোগ ওঠে আরিয়ানকে ফাঁসাতেই কেবল সেই কাজ করা হয়েছিল।

শাহরুখ তারে বক্তৃতা শেষ করেন নিজের ছবি ‘ওম শান্তি ওম’র একটি সংলাপ দিয়ে। হিন্দি ভাষার ওই সংলাপের বাংলা করলে দাঁড়ায় ‘যতক্ষণ না শেষটা আনন্দের হয়, ততক্ষণ সেটা শেষ হয় না’।

অনুষ্ঠানে শাহরুখ ‘পাঠান’ আর ‘জওয়ান’র সাফল্যের জন্য দর্শককে ধন্যবাদ দেন।

শাহরুখ বলেন, " যারা এই সিনেমাগুলো দেখেছেন, তাদের মধ্যে অনেকেই হয়তো আছেন যারা আমার অভিনয়ের ভক্ত নন। কিন্তু তারা পাশে দাঁড়িয়েছিলেন বলেই আমি আজ এখানে দাঁড়িয়ে আছি।"

অনুষ্ঠানে এত কথা বললেও নিজের পরবর্তী কোনো কাজ নিয়ে কথা বলেননি শাহরুখ।

Also Read: সমীরের বিরুদ্ধে ঘুষের মামলায় ‘জবানবন্দি দেবেন’ শাহরুখ-আরিয়ান

Also Read: মাদককাণ্ডের তদন্তে শাহরুখপুত্র আরিয়ানের দোষ মেলেনি

Also Read: চার বছরকে ভুলিয়ে দিল পাঠানের ৪ দিন: শাহরুখ

Also Read: শাহরুখের ভাষায়, প্রত্যাবর্তন নয়, বরং সামনে এগিয়ে চলা

Also Read: পাঠান ঝড়ে ভাঙল সব রেকর্ড