‘অভিষেকে’ জোড়া গোল করে ইংল্যান্ডের নায়ক সাকা

বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গোল করলেন তরুণ এই ফরোয়ার্ড।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 05:42 PM
Updated : 21 Nov 2022, 05:42 PM

সময়টা ভালো যাচ্ছিল না ইংল্যান্ডের। তবে পুরনো হতাশা বিশ্বকাপের শুরুতেই ঝেড়ে ফেলল তারা। দাপুটে পারফরম্যান্সে ইরানকে ভাসাল গোল বন্যায়। দুর্দান্ত জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান রাখলেন বুকায়ো সাকা। বিশ্বকাপ অভিষেকে জোড়া গোল উপহার দিলেন আর্সেনালের এই ফরোয়ার্ড।

খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে সোমবার ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে প্রথমার্ধেই নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ৬-২ ব্যবধানে জিতেছে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

দুই অর্ধে দুটি গোল করে ইংলিশদের জয়ের নায়ক ২১ বছর ৭৭ দিন বয়সী সাকা। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও উঠেছে তার হাতে।

বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গোল করার কীর্তি গড়লেন সাকা। এই ম্যাচেই প্রথম গোলটি করে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হন জুড বেলিংহ্যাম (১৯ বছর ১৪৫ দিন)। যা ছিল তার আন্তর্জাতিক ফুটবলে প্রথম গোল।     

সবচেয়ে কম বয়সে গোলের রেকর্ডটি মাইকেল ওয়েনের। ১৯৯৮ সালে রোমানিয়ার বিপক্ষে ১৮ বছর ১৯০ দিন বয়সে গোল করেছিলেন সাবেক এই ইংলিশ ফুটবলার।

এর আগে ২০টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে সাকার গোল ছিল ৪টি। এবার এক ম্যাচেই করলেন দুটি। যার প্রথমটি আসে ৪৩তম মিনিটে। কর্নার থেকে ডি-বক্সে ম্যাগুইয়ারের হেড পাসে দারুণ ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি।

৬২ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন সাকা। স্টার্লিংয়ের পাসে বল পেয়ে ডি-বক্সে প্রতিপক্ষের দুই খেলোয়াড়ের বাধা এড়িয়ে জায়গা বানিয়ে বাঁ পায়ের শটে ইংল্যান্ডকে চতুর্থ গোল উপহার দেন তিনি।

টানা ৬ ম্যাচে জয়হীন থেকে বিশ্বকাপে পা রেখেছিল ইংল্যান্ড। শুরু হয়েছিল কড়া সমালোচনা। দলকে পথে ফেরানোর ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্সে উচ্ছ্বসিত সাকা।

“এই অনুভূতি বলে বোঝাতে পারব না। অসাধারণ। আমি খুব খুশি, অনেক গর্বিত, জয়ও পেয়েছি আমরা। তাই দিনটা বিশেষ। আমাদের ভালো শুরুর প্রয়োজন ছিল। টুর্নামেন্টে আসার আগে আমরা সেরাটা খেলতে পারিনি। এখানে আমরা সবাইকে দেখিয়েছি, আমাদের মান কী এবং আমরা কী করতে পারি।”

“আমাদের এখন ধারাবাহিক হতে হবে। কারণ, অল্প কিছুদিনের মধ্যেই পরের ম্যাচ এবং আবার মাঠে নামতে হবে।”

২০২০ সালের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে টাইব্রেকারে ব্যর্থ শট নিয়ে দেশের মানুষের কাছেই খলনায়ক হয়ে ওঠেন সাকা। ওই মাপের ম্যাচ না হলেও বিশ্বকাপে দলকে এমন দুর্দান্ত শুরু এনে দিতে পেরে সন্তুষ্ট তিনি।

গত বছর জুলাইয়ে ইতালির বিপক্ষে ইউরোর ওই ফাইনাল নির্ধারিত সময়ের পর অতিরিক্ত সময়েও ১-১ গোলে ড্রয়ে শেষ হয়। পরে টাইবব্রেকারে ৩-২ গোলে হেরে শিরোপা স্বপ্ন ভাঙে ইংল্যান্ডের। ইংলিশদের হয়ে টাইব্রেকার মিস করা তিনজনের একজন ছিলেন সাকা। আরেকজন মার্কাস র‍্যাশফোর্ডও ইরানের বিপক্ষে পেয়েছেন গোল।

এদিন ইংল্যান্ডের হয়ে বাকি দুটি গোল করেন রাহিম স্টার্লিং ও জ্যাক গ্রিলিশ।

আগামী শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক