এইচএসসি: টঙ্গীতে লিখিত উত্তরপত্র গায়েব, দুই শিক্ষককে নোটিস

কক্ষ পরিদর্শকের কাছে উত্তরপত্র জমা দিয়েই পরীক্ষা কেন্দ্র ত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছেন পরীক্ষার্থী।

গাজীপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Nov 2022, 12:38 PM
Updated : 25 Nov 2022, 12:38 PM

চলমান এইচএসসি পরীক্ষায় টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজ কেন্দ্র থেকে এক শিক্ষার্থীর লিখিত উত্তরপত্র হারিয়ে গেছে। এ ঘটনায় দুই কক্ষ পরিদর্শককে কারণ দর্শানোর নোটিস এবং তাদের কক্ষ পরিদর্শনের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রসায়ন বিষয়ের দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা শেষে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন গাজীপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানা এবং টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজের অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব মো. আলাউদ্দিন মিয়া।

অধ্যক্ষ মো. আলাউদ্দিন মিয়া জানান, এ কেন্দ্রে মোট ৭৮০ জন পরীক্ষা দিলেও পরীক্ষার পর লিখিত উত্তরপত্র পাওয়া গেছে ৭৭৯টি। কেন্দ্রের একটি কক্ষে পরীক্ষা শেষে ৫২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫১ জনের লিখিত উত্তরপত্র পাওয়া যায়।

অধ্যক্ষ আলাউদ্দিন মিয়া আরও জানান, অনুসন্ধান করে দেখা গেছে ঘাটতি হওয়া উত্তরপত্রটি ছিল সাহাজ উদ্দিন সরকার স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক পরীক্ষার্থীর। তার বাসা টঙ্গীর বগারটেক এলাকায়।

বিষয়টি অবগত হওয়ার পর ওই পরীক্ষার্থীকে বাসা থেকে ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তবে যথা নিয়মে কক্ষ পরিদর্শকের কাছে উত্তরপত্র জমা দিয়েই পরীক্ষা কেন্দ্র ত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছেন ওই পরীক্ষার্থী।

সাহাজ উদ্দিন সরকার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, তার প্রতিষ্ঠানের ওই পরীক্ষার্থী কক্ষ পরিদর্শক মনিরা খানমের কাছে তার উত্তরপত্রটি জমা দিয়েছে। তারপরও উত্তরপত্র না পাওয়ার বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।

তিনি বলেন, “এটির দায় ওই কক্ষের দুই পরিদর্শকেরই নিতে হবে। পরীক্ষার্থীরা হল ত্যাগের আগেই উত্তরপত্র মিলিয়ে নেওয়া উচিৎ ছিল। এটা তাদের এক ধরনের দায়িত্ব অবহেলা।”

গাজীপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানা জানান, উত্তরপত্র খোয়া যাওয়ার ঘটনায় দুই পরিদর্শক আতিউর রহমান ও মনিরা খানমকে কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হয়েছে। তাদের বিষয়ে শিক্ষাবোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে।

তবে তাদেরকে কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র সচিব বিষয়টি শিক্ষাবোর্ডকে অবগত করেছেন বলেও জানান তিনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক