বিআরটির কাজে নিরাপত্তার ঘাটতি রয়েছে: মহাসড়ক সচিব

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব বলেন, মহাসড়কের কিছু কিছু স্থানে কোনো বেরিয়ার নেই এবং কিছু কিছু স্থানে সেতুর গার্ডার যত্রতত্র তথা অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে।

গাজীপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 August 2022, 03:42 PM
Updated : 19 August 2022, 03:42 PM

বাস র‌্যাপিড ট্রান্সপোর্ট (বিআরটি) প্রকল্পের নির্মাণ কাজে নিরাপত্তার ঘাটতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী।

রাজধানীর উত্তরায় বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার পড়ে পাঁচ মৃত্যুর ঘটনায় দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচনার মধ্যে শুক্রবার প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন সেতু বিভাগের সচিব মো. মনজুর হোসেন এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী।

পরিদর্শনের পর এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলমান বিআরটি প্রকল্পের নির্মাণ কাজের সুরক্ষা ও প্রকল্পে সর্বক্ষেত্রে কী ধরনের সেফটি নিশ্চিত করা হয়েছে তা দেখতেই আমরা প্রকল্প এলাকায় গিয়েছিলাম।”

তিনি বলেন, “উত্তরার বিমানবন্দর এলাকা থেকে উত্তরে গাজীপুরের কয়েকটি স্থানে নির্মাণ কাজের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার ঘাটতি রয়েছে। মহাসড়কের কিছু কিছু স্থানে কোনো বেরিয়ার নেই এবং কিছু কিছু স্থানে সেতুর গার্ডার যত্রতত্র তথা অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে।”

তাই এসব স্থানের বেরিয়ার নির্মাণসহ ফ্লাইওয়ের গার্ডারগুলো সুরক্ষিত করে রাখতে সংশ্লিষ্ট প্রকল্প কর্মকর্তাদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সেতু বিভাগের সচিব মো. মনজুর হোসেন টঙ্গী থেকে কলেজ গেইট পর্যন্ত এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী কলেজ গেইট থেকে ছয়দানা পর্যন্ত প্রকল্প কাজ পরিদর্শন করেছেন।

এ সময় তাদের সঙ্গে গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম, বিআরটি প্রজেক্ট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, গাজীপুর মহানগর উপ-পুলিশ কমিশনার ট্রাফিকসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

১৫ অগাস্ট বিকালে রাজধানীর উত্তরায় প্রাইভেটকারের উপর নির্মাণাধীন বিআরটি প্রকল্পের ক্রংক্রিটের বক্স গার্ডার আছড়ে পড়লে পাঁচজন নিহত ও দুইজন আহত হন। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য।

ঘটনার রাতেই ওই দুর্ঘটনায় নিহত ফাহিমা আক্তার ও ঝরণা আক্তারের ভাই আফরান মণ্ডল বাবু বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেছেন।

মামলায় ক্রেইন পরিচালনাকারী চালক, প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে দায়িত্বপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগ আনা হয়েছে।

আদালত এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২২ সেপ্টেম্বর দিন দিয়েছে পুলিশকে।

আরও পড়ুন-

গার্ডার দুর্ঘটনায় গ্রেপ্তার দশজন রিমান্ডে

গার্ডার দুর্ঘটনা: সেইফটি ইঞ্জিনিয়ার ‘এসএসসি পাস’, খরচ কমাতে পদে পদে ঝুঁকি

গার্ডার দুর্ঘটনা: ক্রেইন চালাচ্ছিলেন চালকের সহকারী

গার্ডার সরাতে ৩ ঘণ্টা: ‘অসহায়ের মত দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে গাড়ির ভেতর মরতে দেখলাম’

গার্ডার পড়ে নিহত রুবেলের নাম বিভ্রাট, কয়েক স্ত্রী মর্গে

গার্ডার দুর্ঘটনা: ‘দুপুরে যাদের মিষ্টি হাতে দেখলাম সন্ধ্যায় শুনি তারা নেই’

গার্ডার দুর্ঘটনা: নিরাপত্তা নিতে সতর্ক করে চিঠি, ব্যবস্থা নেয়নি ‘কেউই’

গার্ডার দুর্ঘটনা: ঠিকাদারের ‘গাফিলতি’ পেয়েছে তদন্ত কমিটি

গার্ডার চাপায় চিড়ে চ্যাপ্টা গাড়ি, ভেতরেই গেল ৫ প্রাণ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক