সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী নিখোঁজ, ‘আতঙ্ক-উৎকণ্ঠায়’ বণিক সমিতি

রোববার মধ্যরাতে উপজেলা সদর বাজার থেকে ওষুধ কিনে বাড়ি ফেরার পথে তিনি নিখোঁজ হন।

গাইবান্ধা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 05:33 PM
Updated : 21 Nov 2022, 05:33 PM

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় এক ব্যবসায়ী ‘রহস্যজনকভাবে’ নিখোঁজ হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

রোববার মধ্যরাতে উপজেলা সদর বাজার থেকে ওষুধ কিনে বাড়ি ফেরার পথে তিনি নিখোঁজ হন বলে স্বজনরা জানান। 

জ্যোতিশ চন্দ্র সরকার (৫৫) নামের এই ব্যক্তি উপজেলা সদর বাজারের ব্যবসায়ী ও উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের তরফবাজিত গ্রামের প্রয়াত গঙ্গাধর সরকারের ছেলে।  

পরিবারের বরাতে পুলিশ জানিয়েছে, জ্যোতিশ চন্দ্র সরকার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাত পৌনে ১২টার দিকে সাদুল্লাপুর বাজারের চৌমাথায় ‘মেডি প্লাস ফার্মেসী’ থেকে ওষুধ কেনেন। পরে মোটরসাইকেলে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন।

জ্যোতিশ চন্দ্র সরকারের ভাতিজা ওষুধ ব্যবসায়ী কাঞ্চন চন্দ্র সরকার জানান, সোমবার ভোর পর্যন্ত জ্যোতিশ চন্দ্র বাড়ি ফিরে না আসায় তার স্বজনরা বিভিন্ন খোঁজাঁখুজি শুরু করেন।

“সকাল ৬টার দিকে বাড়ির অদূরে স্থানীয় সেরাজুল মিয়ার মিল-চাতালের পশ্চিম পাশে কাঁচা সড়কের পাশে তার মোটরসাইকেল, হেলমেট ও স্যান্ডেল পাওয়া যায়।”

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ওই এলাকার আশপাশের পুকুর, জলাশয় ও ঝোপঝাড়ে খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাননি। 

প্রায় দেড় মাস আগে একই স্থানে অজ্ঞাত কিছু লোক তার পথরোধ করেছিল বলে কাঞ্চন চন্দ্র সরকার জানান।

জ্যোতিশ চন্দ্রকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধারের দাবি জানিয়ে সাদুল্লাপুর উপজেলা বণিক সমিতির সভাপতি শফিউল ইসলাম স্বপন জানান, হঠাৎ জ্যোতিশ চন্দ্র সরকার রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হওয়ায় স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক ও উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে।

সাদুল্লাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এনায়েত কবীর জানান, এ ঘটনায় নিখোঁজ ব্যবসায়ীর বড় ভাই চন্দ্র কিশোর সরকার বাদী হয়ে সোমবার বিকালে সাদুল্লাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

তিনি আরও জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও ওই স্থানে পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকা তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল, হেলমেট ও স্যান্ডেল থানায় নিয়ে এসেছে। তার সন্ধানে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক