টাঙ্গাইলে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

বিয়ের আশ্বাসে ২০২১ সালের ১ অক্টোবর ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করা হয় বলে জানান পিপি।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Nov 2023, 05:44 PM
Updated : 29 Nov 2023, 05:44 PM

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের দায়ে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। 

বুধবার টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মাহবুবুর রহমান আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) আলী আহমেদ। 

দণ্ডিত শহীদুল ইসলাম খোকন (২৩) টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার শেখ শিমুল গ্রামের বাসিন্দা। 

মামলার বরাতে পিপি আলী আহমেদ জানান, ঘাটাইলের স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করত ওই শিক্ষার্থী। মাদ্রাসায় যাওয়া আসার পথে ওই শিক্ষার্থীকে প্রেমের প্রস্তাব দিত শহীদুল। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেম হয়। 

“পরে ২০২১ সালের ১ অক্টোবর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে নিজ বাড়িতে ডেকে নিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেন খোকন। পরে বিভিন্ন সময় ধর্ষণের এক পর্যায়ে ওই শিক্ষার্থী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়ভাবে সালিশ হয়। 

“সে সময় বৈঠকে খোকন ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ে করা ও অনাগত সন্তানকে স্বীকৃতি দেওয়ার কথা স্বীকার করেন। কিন্তু পরে বিয়ে না করে পালিয়ে যান তিনি।” 

এ ঘটনায় ২০২২ সালের ২০ মে ওই শিক্ষার্থীর মামা বাদী হয়ে খোকনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে ঘাটাইল থানায় মামলা করেন বলে জানান পিপি। 

তিনি আরও জানান, পরে ওই শিক্ষার্থী একটি সন্তানের জন্ম দেয়। ডিএনএ পরীক্ষায় খোকন ওই শিশুর বাবা বলে প্রমাণিত হয়। 

তদন্ত শেষে পুলিশ খোকনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষের এ আইনজীবী। 

সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় বলে জানান পিপি আলী আহমেদ। 

এ ছাড়া ধর্ষণের ফলে জন্ম নেওয়া শিশুটির ভরণপোষণ রাষ্ট্র বহন করবে; যা রায়ে উল্লেখ করা হয়েছে বলে জানান তিনি। 

এ মামলায় আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ইলিয়াস খান পারভেজ।