রাঙামাটিতে কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে ব্যক্তির যাবজ্জীবন

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি আসামিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়; যা ক্ষতিপূরণ হিসেবে ভিকটিম পাবেন বলে জানান পিপি।

রাঙামাটি প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Jan 2024, 04:02 PM
Updated : 22 Jan 2024, 04:02 PM

রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় সপ্তম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার রাঙামাটির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বিচারক এ ই এম ইসমাইল হোসেন আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) সাইফুল ইসলাম।

দণ্ড পাওয়া মো. ইব্রাহিম (৪৩) সদর উপজেলার বারান্দি পাড়া (লিচু তলা) গ্রামের সন্তোষ কুমার বিশ্বাসের ছেলে। তিনি ধর্মান্তরিত হয়েছেন। আগে তার নাম ছিল কাঞ্চন কুমার বিশ্বাস।

মামলার বরাতে পিপি সাইফুল বলেন, “২০১১ সালে ১৫ জুলাই ১৩ বছর বয়সি ওই ছাত্রীকে লংগদু উপজেলার উল্টাছড়ি এলাকার একটি কলা বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করেন ইব্রাহিম।

“সেই সময় ওই কিশোরীর চিৎকারে আশপাশের মানুষ এগিয়ে গেলে ইব্রাহিম পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে দেয়।”

এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী ইব্রাহিমকে আসামি করে লংগদু থানায় মামলা করেন।

সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়; যা ৯০ দিনের মধ্যে আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী।

তিনি জানান, জরিমানার অর্থ মামলার ভিকটিমকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আসামি পক্ষের আইনজীবী কাজী মঈনুল ইসলাম হাসান বলেন, “এই রায়ের বিরুদ্ধে আমরা উচ্চ আদালতে যাব। আশা করছি উচ্চ আদালতে আসামিকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারব।”