‘কমিটি নিয়ে সংঘর্ষ’: ২ দিন পর আহত যুবলীগ কর্মীর মৃত্যু

দিলীপ ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী ছিলেন বলে জানান নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ আলমাছ৷

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Nov 2023, 04:27 PM
Updated : 5 Nov 2023, 04:27 PM

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ‘কমিটিতে পদ নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে’ সংঘর্ষে জখম হওয়ার দুইদিন পর দ্বীন ইসলাম দিলীপ নামে এক যুবলীগ কর্মীর মৃত্যু হয়েছে৷

রোববার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানান হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া৷

৩৬ বছর বয়সী দিলীপ উপজেলার মুড়াপাড়া ইউনিয়নের দড়িকান্দি এলাকার মৃত আলী হোসেনের ছেলে।

তিনি এ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী ছিলেন বলে জানান মুড়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ আলমাছ৷

নিহতের স্ত্রী রূপালী বেগমের অভিযোগ, কমিটি নিয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক পাভেলের সঙ্গে দিলীপের দ্বন্দ্ব ছিল৷ ওই দ্বন্দ্বের জেরে পাভেল তার ছোটভাই পিয়াল হক ও সহযোগী আবুল হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে শুক্রবার রাতে দিলীপ ও তার বন্ধু সবুজ আহমেদকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে৷

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ বলছে, যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে শুক্রবার রাতে যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ওই সংঘর্ষে দিলীপ ও সবুজ আহত হন।

সবুজ এখনও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পাভেল ও পিয়াল হক উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বরকত উল্লাহর ছেলে।

অভিযোগ অস্বীকার করে এমদাদুল হক পাভেল বলেন, “শুক্রবার রাতে মাদক ব্যবসাকে কেন্দ্র করে আবুল হোসেন ও দিলীপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। দিলীপ ও সবুজ যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটিতে তাদের নাম রাখতে চেয়েছিলেন। তারা মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে আমি বিরোধিতা করেছিলাম। এ কারণে তারা এ ঘটনায় আমার নাম জড়িয়েছে।”

এ বিষয়ে আবুল হোসেনের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি৷ তার মোবাইল নম্বরটিতে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়৷

রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতাউর রহমান বলেন, “শনিবার রাতে নিহতের মা বাদী হয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা করেছেন। ভিকটিম যেহেতু মারা গেছেন, তাই মামলাটি এখন হত্যা মামলা হিসেবে তদন্ত করা হবে।”