যুবলীগের সুবর্ণজয়ন্তী: যুব সমাবেশের উদ্বোধন, সভামঞ্চে শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ মহাসমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত রয়েছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Nov 2022, 09:17 AM
Updated : 11 Nov 2022, 09:17 AM

যুবলীগের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত যুব মহাসমাবেশের উদ্বোধন করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার বেলা আড়াইটার পর তিনি অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছালে সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হয়। সভামঞ্চের সামনে প্রধানমন্ত্রী জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ উত্তোলন করেন দলীয় পতাকা।

এরপর বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে, জাতীয় সংগীত গেয়ে ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনের সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী সমাবেশস্থলে উপস্থিত হলে স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। ‘শেখ হাসিনা সরকার, বারবার দরকার’, ‘ধন্য পিতার ধন্য কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা’, ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’, ‘আজকের এই দিনে পিতা তোমায় মনে পড়ে, আজকের এই দিনে, মনি তোমায় পড়ে মনে’– ইত্যাদি স্লোগান দিচ্ছিলেন নেতাকর্মীরা।

আওয়ামী লীগ সভাপতিকে সভামঞ্চে ফুল দিয়ে বরণ করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল। প্রধানমন্ত্রীর হাতে তারা ক্রেস্ট তুলে দেন। 

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একটি পেইন্টিং শেখ হাসিনাকে উপহার দেন যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। কাঠ খোদাই করা বঙ্গবন্ধুর ছবি উপহার দেন ঢাকা উত্তর যুবলীগের সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। যুবলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুক্তা আক্তার প্রধানমন্ত্রীকে পরিয়ে দেন উত্তরীয়।

সমাবেশ দুপুরে শুরু হলেও সকাল ৯টা থেকেই যুব নেতাকর্মীরা ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে নানা রঙের টিশার্ট পরে, ক্যাপ মাথায়, প্ল্যাকার্ড হাতে বাদ্যবাজনা বাজিয়ে সমাবেশ স্থলে আসতে শুরু করেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ যুবলীগের পদপ্রত্যাশীদের ছবি, দেশের বিভিন্ন জেলা মহানগরের পদ প্রত্যাশীদের ছবি নিয়ে আলাদা আলাদা মিছিল এসে মিলিত হয় সোহরাওয়ার্দীতে।

যুবলীগ নেতা কর্মীদের বাইরে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠন ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মীরাও সমাবেশে যোগ দিয়েছেন। 

এ সমাবেশের মধ্য দিয়ে রাজনৈতিক মাঠ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখার ঘোষণা আগেই দিয়ে রেখেছে আওয়ামী লীগ। যুবলীগের মহাসমাবেশে দেশের ৬৪ জেলা থেকে ১০ লাখ নেতাকর্মীর সমাগম ঘটবে বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে আগেই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শেখ মণির নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর ঢাকা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক যুব কনভেনশনে প্রতিষ্ঠিত হয় আওয়ামী যুবলীগ। ৫০ বছর পর শেখ মণির বড় ছেলে শেখ ফজলে শামস পরশ এখন সংগঠনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

Also Read: যুবলীগের সুবর্ণজয়ন্তী: মিছিলে মিছিলে মুখরিত সোহরাওয়ার্দীর পথ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক