ক্রেডিট কার্ডের লিমিট বাড়ানোর সুবিধা ও অসুবিধা

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের ক্ষেত্রে টাকা পরিশোধের ব্যাপারটাও মাথায় রাখতে হয়।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Nov 2022, 12:49 PM
Updated : 15 Nov 2022, 12:49 PM

ঋণ করে ঘি খাওয়ার বিষয়টা হয়ত ভালো। তবে ক্রেডিট কার্ডের ক্রয় ক্ষমতা বাড়ানোর আগে সাবধান।

ধরা যাক অনেকদিন ধরে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করছেন। আর সময় মতো হিসাব করে পরিশোধও করছেন এই ধারের টাকা। এবার মাসিক উপার্জনের সংখ্যাটা বাড়ার পর ভাবতেই পারেন কার্ডের লিমিট বাড়ানো ব্যাপারটা।

এতে খরচ করার ক্ষমতা বাড়বে। ফলে সুবিধা বাড়বে। তবে কিছু অসুবিধাও আসতে পারে। 

ক্রেডিট কার্ডের লিমিট বাড়ানোর প্রক্রিয়াটা খুবই সহজ। ব্যাংকের কল সেন্টারে ফোন করলে এবং তাদের কিছু প্রশ্নের উত্তর দিলেই প্রক্রিয়াটি শুরু হবে।

এরপর ব্যাংকের চাহিদা মাফিক কিছু কাগজপত্র জমা দেওয়ার ব্যাপার থাকবে। অনেকসময় ব্যাংক থেকেই আপনাকে ফোন করে ক্রেডিট লিমিট’ বাড়ানো সুযোগ দেবে।

তবে ক্রেডিট লিমিট বাড়াবেন কি-না সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে নিজেকে তিনটি প্রশ্ন করতে বলছেন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আর্থিক পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ‘ক্রেডিট কার্মা’র ‘চিফ পিপলস অফিসার’ কোলিন ম্যাকক্রিয়ারি।

আর সেগুলো হল- আপনার ক্রেডিট স্কোর কেমন? কতদিন ধরে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করছেন? আপনার উপার্জনের মাত্রায় কোনো পরিবর্তন কি এসেছে? এগুলো উত্তরের ভিত্তিতে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

রিয়েলসিম্পল ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে  ম্যাকক্রিয়ারি বলেন “এরপর জানতে হবে কতটুকু ক্রেডিট লিমিট বাড়ানো দরকার। এর উত্তর আসবে আরেকটি প্রশ্ন থেকে, কেনো আপনার ক্রেডিট লিমিট বাড়ানো দরকার? হতে পারে সামনে বড় কোনো অনুষ্ঠান আসছে, ঘরের কোনো আসবাবপত্র কিনতে হবে ইত্যাদি। অনেক কিছুই হতে পারে। তবে মনে রাখা উচিত, ক্রেডিট যতই বাড়ান না কেনো, খরচ ততটাই করা যাবে যতটা শোধ করার ক্ষমতা আপনার আছে।”

সুবিধা

সবচাইতে বড় সুবিধা হল আরও বেশি খরচ করতে পারবেন। হতে পারে এরকম, যে খরচটা করা জরুরি কিন্তু এক ধাক্কায় করতে পারছেন না সেসব ক্ষেত্রে উপকার মিলবে।

আরেকটা দিক হল- যতটা ঋণ নিতে পারেন ঠিক তার কতটা নিয়মিত নিচ্ছেন তার অনুপাত।

একে বলে ‘ক্রেডিট ইউটিলাইডেশন’। এর পরিমাণ যত কম থাকবে আপনার ক্রেডিট স্কোর ততই ভালো হবে।

অসুবিধা

ক্রেডিট লিমিট বাড়ানো কারণে প্রাথমিকভাবে ক্রেডিট স্কোর নিচে নেমে আসবে। পাশাপাশি যদি অন্য কোনো ঋণ নিতে চান, সেগুলো নাকচ হয়ে যেতে পারে।

আবার ক্রেডিট কার্ডের লিমিট বাড়ার পাশাপাশি অতিরিক্ত খরচ করে ফেলার প্রবণতা দেখা দেবে। সেটা সামাল দিতে না পারলে ক্রমেই বড় মাপের ঋণের বোঝা ঘাড়ে চেপে বসবে।

আবার ক্রেডিট কার্ড বাদে যদি আপনার অন্য কোনো ঋণ থাকে যার মাসিক কিস্তি দিতে হয়, তবে ক্রেডিট কার্ডের লিমিট না বাড়ানোই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

আরও পড়ুন

Also Read: ক্রেডিট কার্ডের হিসাব রাখার উপায়

Also Read: ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে স্বাস্থ্যকর অভ্যাস

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক