অগাস্ট-সেপ্টেম্বর দু’মাসেই মূল্যস্ফীতি ৯ শতাংশের বেশি

একক মাসে অগাস্টে পয়েন্ট টু পয়েন্ট মূল্যস্ফীতি বেড়ে যাওয়ার হার গত এক দশকে সর্বোচ্চ।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Oct 2022, 03:51 PM
Updated : 5 Oct 2022, 03:51 PM

অবশেষে সামনে এল অগাস্টের মূল্যস্ফীতির তথ্য; যা ওই মাসে ৯ দশমিক ৫ শতাংশ এবং পরের মাস সেপ্টেম্বরে কিছুটা কমে ৯ দশমিক ১ শতাংশ হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক শামসুল আলম।

সরকারিভাবে এ তথ্য এখনও প্রকাশ না হলেও বুধবার প্রতিমন্ত্রী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে মূল্যস্ফীতির হালনাগাদ তথ্য জানান। তিনি পয়েন্ট টু পয়েন্ট ভিত্তিতে মূল্যস্ফীতির এ পরিসংখ্যান জানালেও খাদ্য ও খাদ্য বর্হিভূত খাতে কত হয়েছে সেটি বলেননি।

দু’দিন আগে সোমবার এক অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের মূল্যস্ফীতি ‘বাগে এসেছে’ ও দু’ একদিনের মধ্যে প্রকাশ করা হবে এমন বক্তব্যের মধ্যে প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক এ তথ্য জানান।

তবে বিবিএসের প্রতিবেদন কবে প্রকাশ করা হবে তা বলেননি প্রতিমন্ত্রী।

মূল্যস্ফীতির পারদ অগাস্টে এতটা চড়ে যাওয়ার পেছনে একলাফে জ্বালানি তেলের সর্বোচ্চ মূল্যবৃদ্ধি এবং এ কারণে সব ধরনের পণ্যমূল্য বেড়ে যাওয়াকে কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে।

একক মাসে অগাস্টে পয়েন্ট টু পয়েন্ট ৯ দশমিক ৫০ শতাংশ মূল্যস্ফীতি বেড়ে যাওয়ার এ হার গত এক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগের মাস জুলাইয়ের চেয়ে বেড়েছে ২ শতাংশীয় পয়েন্ট বেড়েছে।

এর আগে ২০১১-১২ অর্থবছরের জুলাই থেকে এপ্রিল পর্যন্ত টানা ১০ মাসে পয়েন্ট টু পয়েন্ট মূল্যস্ফীতি সাড়ে ৯ শতাংশের বেশি ছিল। এর মধ্যে সেপ্টেম্বরে সর্বোচ্চ ১১.৯৭ শতাংশ ও এপ্রিলে সর্বনিম্ন ৯.৯৩ শতাংশ ছিল।

বৈশ্বিক যুদ্ধ পরিস্থিতি ও ডলারের ব্যাপক মূল্য বেড়ে যাওয়ার কারণে দেশের বাজারে সবধরনের পণ্য ও সেবার দাম বেড়ে যাওয়ায় মূল্যস্ফীতি বাড়তে থাকে। আগের অর্থবছরের শেষ মাস জুনে নয় বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ এবং পরের মাস জুলাইয়ে কিছুটা কমে ৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ হয়।

এমন প্রেক্ষাপটে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহেও গত অগাস্টের মূল্যস্ফীতির তথ্য প্রকাশ না করায় নানা সমালোচনার মধ্যে মন্ত্রী মান্নান গত সোমবার দেরি হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেন।

দেশে প্রতিমাসে মূল্যস্ফীতির হালনাগাদ তথ্য দেওয়ার রেওয়াজ থাকলেও এখনও তা প্রকাশ করা হয়নি। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) প্রতিবেদন তৈরি করেছে বলে সংবাদমাধ্যমে খবরও এসেছে। তবে মূল্যস্ফীতি এক লাফে দুই অংকের কাছাকাছি চলে যাওয়ার কারণে তা চূড়ান্ত করে প্রকাশ করা হচ্ছে না বলে সমালোচনা রয়েছে।

বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) অনুষ্ঠানে সোমবার অগাস্টের মূল্যস্ফীতির প্রতিবেদন না দেওয়ার দিকে ইঙ্গিত করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, “আমরা যখনই তথ্য দেব সৎভাবে দেব। দুদিন পরে দেব কিন্তু ডক্ট্রিন করে দেব না। তথ্য ইঞ্জিনিয়ারিং করে দেব না। প্রশাসনিক কারণে সময়মত তথ্য দিতে পারিনি। অন্য কোনও কারণে নয়।”

তিনি বলেন, “দ্রব্যমূল্যের পাগলা ঘোড়া বাগে এসেছে এ (সেপ্টেম্বর) মাসে। কতটা বাগে এসেছে জানতে পারবেন দুয়েক দিনের মধ্যেই।”

চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ৫ দশমিক ৬ শতাংশ গড় মূল্যস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন:

Also Read: মূল্যস্ফীতি ‘বাগে এসেছে’, তথ্য প্রকাশ দুয়েক দিনেই: পরিকল্পনামন্ত্রী

Also Read: জুলাইয়ে সামান্য কমেছে মূল্যস্ফীতি, আশা দেখছেন পরিকল্পনামন্ত্রী

Also Read: মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ: ৩ মাসের মধ্যে ফের বাড়ল রেপো সুদহার

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক