মিয়ানমার সীমান্তে বিস্ফোরণ: পা ‘হারাতে বসা’ যুবকের সঙ্গে ‘দিশেহারা’ পরিবারও

মিয়ানমার সীমান্তে হঠাৎ বিস্ফোরণে পা হারানোর ঝুঁকিতে থাকা অন্যথোয়াই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Sept 2022, 04:48 PM
Updated : 17 Sept 2022, 04:48 PM

বাম পায়ের হাঁটু থেকে নিচের অংশ মোটা ব্যান্ডেজ দিয়ে বাঁধা। সেই পা এত ভারী হয়ে আছে যে কোনোভাবেই নাড়াতে পারছেন না। মাঝে মাঝে কঁকিয়ে উঠছেন ব্যাথায়। এর সঙ্গে অনিশ্চিত ভবিষ্যত ভাবনা যেন তাকে আরও বিমর্ষ করে তুলেছে।

মিয়ানমার সীমান্তে হঠাৎ বিস্ফোরণে পা হারানোর ঝুঁকি নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অন্যথোয়াই তঞ্চঙ্গা কখনও তাকাচ্ছেন পায়ের দিকে, কখনওবা ছাদের দিকে তাকিয়ে আছেন একদৃষ্টিতে।

আহত এ যুবকের কাতরানোর শব্দে হাসপাতালের সিটের পাশে বসে থাকা তার মা প্রায়ই নিরূপায় হয়ে পড়ছেন। কী করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। দুশ্চিন্তা ভর করেছে তার মধ্যেও। কেননা পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম সন্তানের এ অবস্থায় স্বামী হারা এ নারীও যেন বিমর্ষ হয়ে পড়েছেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপতালের পঞ্চম তলার ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন অন্যথোয়াই, সঙ্গে আছেন তার মা ইয়াং মে তঞ্চঙ্গা ও কাকা ইছামং তঞ্চঙ্গা। শনিবার সন্ধ্যায় কথা হয় তাদের সঙ্গে। আহত ছেলের অবস্থা কোন দিকে মোড় নেবে সেই ভাবনায় অস্থির তারা।

অন্যথোয়াইকে উদ্ধার করে প্রথমে কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতাল, পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল হয়ে তাকে রাতেই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শনিবার রাতেই তার পায়ে অপারেশন হবার কথা।

শুক্রবার মিয়ানমার সীমান্তবর্তী বান্দরবান জেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তমব্রু এলাকার জঙ্গলে চরতে থাকা গরু খুঁজতে গিয়ে বিস্ফোরণে একটি পা হারাতে বসেছেন ২২ বছরের যুবক অন্যথোয়াই।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা সেই আশঙ্কা প্রকাশ করে বলছেন, অপারেশন করে তার বাম পা কেটে ফেলে দিতে হতে পারে।

পরিবারের উপার্জনক্ষম একমাত্র ব্যক্তির এমন দশায় দিশেহারা তার পরিবার।

আগের কয়েকদিনের মত শনিবারও বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তের বিপরীতে সারাদিন ভারী গোলাগুলির আওয়াজ শুনতে পেয়েছেন সীমান্তের বাসিন্দারা; এতে তাদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

অন্যথোয়াইয়ের আহত হওয়ার দিন মিয়ানমার থেকে আসা গোলার বিস্ফোরণে রোহিঙ্গাদের হতাহতের ঘটনাও ঘটে।

শনিবার হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় সন্তানের পাশে বসে রয়েছেন ইয়াং মে। স্বামী হারা এ নারী বলেন, দুই ভাই এক বোনের মধ্যে বড় ছেলে অন্যথোয়াই দিনমজুরের কাজ করার পাশাপাশি চাষের কাজও করত। তার আয়েই আমাদের ঘর চলে। এখন তার কিছু হলে আমাদের পরিবারের কী হবে জানি না।

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তমব্রু তিন নম্বর ওয়ার্ডে মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বিস্ফোরণে আহত হন অন্যথোয়াই। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন আরও তিনজন। সীমান্ত এলাকার আধা কিলোমিটারের মধ্যেই তাদের বাড়ি।

বেডে শুয়ে অন্যথোয়াই বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘‘আমরা বাড়িতে গরু লালন-পালন করি। জিরো পয়েন্টের কাছে জঙ্গলে চরতে যাওয়া গরু খুঁজতে গিয়ে একটি ছড়া পার হবার সময় বাম পা দেয়ার সাথে সাথে বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় পড়ে গেলে সাথে থাকা লোকজন আমাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। ’’ 

তার মা ইয়াং মে জানান, তমব্রু তিন নম্বর ওয়ার্ডের সীমান্তবর্তী এলাকায় ৬০ থেকে ৭০ পাহাড়ি পরিবার বসবাস করে। সেখান থেকে আধ মাইলের মধ্যে মিয়ানমার সীমান্তের জিরো পয়েন্ট। লাগোয়া এলাকায় তারা চাষাবাদও করেন।

সাম্প্রতিক সময়ে প্রায়ই ওপার থেকে গোলাগুলির আওয়াজ শোনা যায় বলেও তার ভাষ্য।

তবে নিজের ঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে যেতে তাদের অনীহা রয়েছে উল্লেখ করে ইয়াং মে স্থানীয় ভাষায় বলেন, নিজের ঘর ছেড়ে কেউ কি অন্য কোথাও যায়? তবে মাঝেমধ্যে স্থানীয় একটি বৌদ্ধ মন্দিরে গিয়ে তারা আশ্রয় নিতেন। এর মধ্যে কীভাবে কি হয়ে গেল বুঝতে পারছি না।

তার দাবি, মাটিতে পুঁতে রাখা মাইন বিস্ফোরণ হয়ে এ ঘটনা ঘটেছে।

অন্যথোয়াইয়ের সঙ্গে থাকা তার কাকা ইছামং ভাইপোর চিকিৎসা ও ভবিষ্যৎ নিয়ে উৎকণ্ঠা প্রকাশ করে বলেন, রাতে পায়ে অপারেশন হবে। আমাদের টাকা-পয়সাও তেমন নেই। চিকিৎসা করাতে আমাদের কষ্ট হচ্ছে।

হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. চন্দন দাশ বলেন, বিস্ফোরণে আহত ছেলেটির বাম পা জখম হয়েছে। হাঁটুর নিচ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পায়ের কিছু অংশ বাদ দিতে হতে পারে।     

সাম্প্রতিক সময়ে তুমব্রু সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে স্বাধীনতাকামী আরাকান আর্মির সংঘর্ষ চলছে বলে খবর বেরিয়েছে।

এরই জের ধরে মিয়ানমার থেকে গোলা ও মর্টার শেল বাংলাদেশে এসে পড়ার ঘটনাও ঘটেছে। এ নিয়ে সীমান্তবর্তী এলাকার লোকজনের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

আরও পড়ুন:

Also Read: মিয়ানমার সীমান্তে সারাদিন গুলির শব্দ, আতঙ্কে বাসিন্দারা

Also Read: মিয়ানমার সীমান্তে ‘মাইন’ বিস্ফোরণে বাংলাদেশি আহত

Also Read: মিয়ানমারের গোলা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে, হতাহতের খবর

Also Read: সীমান্তে মিয়ানমারের গোলাগুলি বন্ধ হলেও আতঙ্কে স্থানীয়রা

Also Read: মিয়ানমারের দূতকে ফের ডেকে নিয়ে গোলাবর্ষণের প্রতিবাদ

Also Read: মিয়ানমারের নাগরিকদের ঢুকতে দেওয়া হবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Also Read: বান্দরবান সীমান্তে এবার পড়ল মিয়ানমারের যুদ্ধবিমানের গোলা: পুলিশ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক