নেইমারের ‘বিশ্বসেরা মিডফিল্ডার’ কাসেমিরো, একমত তিতে

বিশ্বকাপে এর চেয়ে দেরিতে ব্রাজিল জয়সূচক গোল পেয়েছে কেবল এক ম্যাচে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Nov 2022, 07:08 AM
Updated : 29 Nov 2022, 07:08 AM

একের পর এক আক্রমণ করেও গোলের দেখা পাচ্ছিল না ব্রাজিল। ফরোয়ার্ডরা যখন ব্যর্থ, শেষ দিকে দলের ত্রাতা হয়ে এলেন কাসেমিরো। চমৎকার এক গোলে সুইজারল্যান্ডকে হারানোর নায়ক এই মিডফিল্ডার। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের প্রশংসায় সতীর্থ নেইমার ও কোচ তিত। 

‘জি’ গ্রুপের ম্যাচে সোমবার সুইসদের ১-০ গোলে হারায় ব্রাজিল। টানা দুই জয়ে গ্রুপ পর্বে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই শেষ ষোলোয় জায়গা নিশ্চিত হয়ে যার তাদের। ফ্রান্স ও পর্তুগালও উঠে গেছে নকআউট পর্বে। 

সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচজুড়েই আধিপত্য করে ব্রাজিল। আক্রমণের ঝাঁপি খুলে কোণঠাসা করে রাখে তারা প্রতিপক্ষকে। গোলের কয়েকটি সুযোগও আসে, কিন্তু কাজে লাগাতে পারেননি ভিনিসিউস জুনিয়র, রিশার্লিসনরা। 

৬৪তম মিনিটে চমৎকার নৈপুণ্যে বল একবার অবশ্য জালে পাঠান ভিনিসিউস। কিন্তু আক্রমণের শুরুতে রিশার্লিসন অফসাইডে থাকায় মেলেনি গোল। তবে হাল ছাড়েনি ব্রাজিল। চালিয়ে যায় আক্রমণ, চেপে ধরে সুইজারল্যান্ডকে। 

নির্ধারিত সময়ের যখন ৭ মিনিট বাকি, ধরা দেয় কাঙ্ক্ষিত গোল। ৮৩তম মিনিটে ভিনিসিউসের কাছ থেকে বল পেয়ে বুলেট গতির শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন কাসেমিরো। দলকে ভাসান উল্লাসে। 

সার্বিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলে জেতা ম্যাচে গোড়ালিতে চোট পেয়ে সুইজারল্যান্ড ম্যাচে ছিলেন না ব্রাজিল। হোটেল রুমে বসেই দলের খেলা উপভোগ করেন তিনি। জয়ের পরপরই কাসেমিরোকে ‘বিশ্বসেরা মিডফিল্ডার’ আখ্যা দিয়ে টুইট করেন ব্রাজিলের এই তারকা। 

“কাসেমিরো অনেকদিন ধরেই বিশ্বের সেরা মিডফিল্ডার।” 

আরও দেরিতে গোল দিয়ে বিশ্বকাপে ব্রাজিলের জয় আছে আর কেবল একটি। ২০১৮ সালে রাশিয়া আসরে কোস্টা রিকার বিপক্ষে ৯১ মিনিটে নেইমার ও ৯৭ মিনিটে ফিলিপে কৌতিনিয়োর গোলে ২-০তে জিতেছিল পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। 

সুইজারল্যান্ড ম্যাচের পর সেই পরিসংখ্যান ধরে ব্রাজিল কোচ তিতেকে প্রশ্ন করা হয়, নেইমারের টুইটের সঙ্গে তিনি একমত কিনা। 

“অভ্যাসের কারণে, আমি সবসময় মতামতকে সম্মান করি, কিন্তু সেগুলোয় মন্তব্য করি না। তবে আজ আমি সেটা করব। হ্যাঁ, আমি (নেইমারের সঙ্গে) একমত।” 

এরপর ম্যাচে ৩০ বছর বয়সী কাসেমিরোর পজিশন নিয়েও কথা বলেন তিতে। 

“কাসেমিরো দ্বিতীয় মিডফিল্ডার, এটাই আমরা দেখে থাকি। সে সেন্ট্রাল খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকে। আর নিচ থেকে উঠে এসে সবাইকে চমকে দেয়। কাসেমিরো যদি আগে থেকেই উপরে থাকে, তাহলে তাকে প্রতিপক্ষের মার্ক করা সহজ। কিন্তু যখন সে নিচ থেকে উঠে এসে, সবাইকে বিস্মিত করতে পারে।” 

আগামী শুক্রবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ক্যামেরুনের মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক