হাসপাতালে বসে তোমাদের ম্যাচ দেখব, বললেন পেলে

দক্ষিণ কোরিয়া ম্যাচের আগে নেইমারদের প্রতি শুভকামনা জানিয়েছেন পেলে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Dec 2022, 05:52 PM
Updated : 5 Dec 2022, 05:52 PM

আর কিছুক্ষণ পর দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে নামবে ব্রাজিল। এই লড়াই দেখার জন্য তর সইছে না ফুটবল কিংবদন্তি পেলের। উত্তরসূরিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে তিনি ইন্সটাগ্রামে লিখেছেন, ম্যাচটি দেখবেন হাসপাতাল থেকে।

দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত একটায় শুরু হবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ম্যাচ। এর ঘণ্টা তিনেক আগে নেইমারদের প্রতি শুভকামনা জানিয়েছেন পেলে। সঙ্গে পোস্ট করেছেন ১৯৫৮ বিশ্বকাপের সময় তোলা একটি ছবি।

“এখানে হাসপাতালে বসে আমি ম্যাচটি দেখব এবং তোমাদের সবাইকে সমর্থন জানাব। এই যাত্রায় আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ। আমাদের ব্রাজিলের জন্য শুভকামনা।”

সুইডেনে অনুষ্ঠিত ৫৮’র ওই আসরে ফুটবল বিশ্বকে চমকে দিয়ে ব্রাজিলকে শিরোপা জিতিয়েছিলেন পেলে। এরপর আরও দুটি বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পান তিনি। ফুটবল ইতিহাসে তিনটি বিশ্বকাপ জয়ী একমাত্র ফুটবলার তিনি।

সাম্প্রতিক সময় অনেক শারীরিক সমস্যার মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে ৮২ বছর বয়সী পেলেকে।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে পেলের বৃহদান্ত্রে টিউমার ধরা পড়ে। পরে করানো হয় অস্ত্রোপচার। প্রায় এক মাস হাসপাতালে থেকে বাড়ি ফেরেন তিনি। এরপর থেকে নিয়মিত কেমোথেরাপি চলছে তার।

নিয়মিত চিকিৎসার অংশ হিসেবে গত বুধবার সাও পাওলোর আলবার্ট আইনস্টাইন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় পেলেকে। শনিবার ব্রাজিলের দৈনিক পত্রিকা ‘ফোলহা ডি সাও পাওলো’র প্রতিবেদনে বলা হয়, অন্ত্রের ক্যান্সারের চিকিৎসায় কেমোথেরাপিতে পেলের শরীর এখন আর সাড়া দিচ্ছে না, তাকে প্যালিয়েটিভ কেয়ার ইউনিটে নেওয়া হয়েছে।

এই খবর নাড়িয়ে দেয় পুরো ক্রীড়াঙ্গনকে। পেলেকে নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন সবাই। তার সুস্থতার জন্য শুরু হয় প্রার্থনা।

ওইদিন রাতেই হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণের চিকিৎসায় ভালো সাড়া দিচ্ছে পেলের শরীর এবং আপাতত স্থিতিশীল আছেন তিনি। তবে তার চিকিৎসকদের কেউ প্যালিয়েটিভ কেয়ারে রাখার তথ্য নিশ্চিত করেননি।

এরপর সোমবার পেলের এক মেয়ে ফ্লাভিয়া নাসিমেন্তো জানান, তার বাবাকে প্যালিয়েটিভ কেয়ারে নেওয়াই হয়নি। সব ভুল খবর ছাড়ানো হয়েছে। এরপরই এলো পেলের এই বার্তা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক