বাস চাপায় এএসআই নিহত: আট দিন পর চালক ও সহকারী গ্রেপ্তার

ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে বাসটি শনাক্ত করা হয়। এরপর এর চালক ও তার সহকারীর বিষয়ে তথ্য পায় পুলিশ।

গাজীপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 07:11 PM
Updated : 9 Feb 2024, 07:11 PM

ইজতেমার নিরাপত্তায় করা তল্লাশি চৌকিতে বাস চাপায় এক পুলিশ কর্মকর্তার প্রাণহানি ও আরেকজনের গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনায় সন্দেহভাজন বাস চালক ও তার সহকারীকে গ্রেপ্তারের কথা জানানো হয়েছে।

দুর্ঘটনার আট দিন পর শুক্রবার সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা জানান গাজীপুর মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ কমিশনার মোহাম্মদ নাজির আহমেদ খান।

গ্রেপ্তার ফয়সাল আহম্মেদ বাস চালক ও হাবিবুর রহমান তার সহকারী বলে জানানো হয়েছে। তাদেরকে বৃহস্পতিবার ঢাকার বিমানবন্দর স্টেশনের পাশ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ কর্মকর্তা নাজির আহমেদ জানান, ভোরে এই দুর্ঘটনার সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে বাসটি শনাক্ত করা হয়। এরপর তার চালক ও সহকারীদের পরিচয় বের করা হয়।

ইজতেমার প্রথম পর্বে গত ২ ফেব্রুয়ারি ভোরে টঙ্গী পূর্ব থানার স্টেশন রোড এলাকায় পুলিশের চৌকিতে দায়িত্ব পালন করছিলেন এসআই আমির হামজা ও এএসআই হাসানুজ্জামান।

একটি দ্রুতগামী বাস দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী দুই জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠালে চিকিৎসক হাসানুজ্জামানকে মৃত ঘোষণা করেন।

আমির হামজা নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন আছেন।

হাসানুজ্জামান ইজতেমায় ডিউটি করতে মানিকগঞ্জ থেকে এসেছিলেন।

এই ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা ও পরীক্ষা নিরীক্ষার পর জানা যায়, বাসটি ছিল গাজীপুর পরিবহনের।