বুলবুল হত্যার ঘটনায় শাবিতে ছাত্রলীগের শোক শোভাযাত্রা

এর আগে তিন দফা দাবি জানিয়ে ভিসি বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ছাত্রলীগ।

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
Published : 27 July 2022, 02:42 PM
Updated : 27 July 2022, 02:42 PM

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে’ শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদ হত্যার প্রতিবাদে এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শোক শোভাযাত্রা করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

বুধবার দুপুর ১২টায় কালো ব্যাজ ধারণ করে নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু চত্বর থেকে শোভাযাত্রা শুরু করে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে গোলচত্বরে এসে জমায়েত হন।

এ সময় নেতারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে এবং ভবিষ্যতে যেন এমন ঘটনা না ঘটে সেটিও নিশ্চিত করতে হবে।

এতে অংশ নেন শাবি ছাত্রলীগের সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. খলিলুর রহমান, সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক সজিবুর রহমান, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ ছাত্রলীগের সহসভাপতি মামুন শাহ, সাবেক সদস্য আশরাফ কামাল আরিফ, সাবেক সদস্য মাহবুবুর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা তারেক হালিমী, সুমন সরকার, রসায়ন বিভাগের সভাপতি মেহেদী হাসান স্বাধীন।

এর আগে সকাল ১০টায় তিন দফা দাবি জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বরাবর স্মারকলিপি দেয় শাখা ছাত্রলীগ।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- দ্রুত সময়ের মধ্যে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে; বুলবুলের পরিবারকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক আর্থিক সহায়তা প্রদান করতে হবে; ক্যাম্পাসের সব জায়গায় পর্যাপ্ত লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনতে হবে; পাশাপাশি টিলাসহ বিভিন্ন জায়গায় নিরাপত্তাকর্মী বৃদ্ধি করে ক্যাম্পাসের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

সোমবার সন্ধ্যায় ক্যাম্পাসের ভেতরে ‘ছিনতাইকারীদের’ ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারান বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদ। সঙ্গে থাকা এক ছাত্রীর ভাষ্য, তিনজন মাস্ক পরা লোক এসে বুলবুলকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

খুনের ঘটনায় তদন্তে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কমিটি গঠন করে। এর আগেই বুলবুলের সহপাঠীরা আন্দোলনে নেমে খুনিদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম দেয়। হত্যার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন বাদী হয়ে জালালাবাদ থানায় সোমবার রাতে অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এখন পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার ও দুজনকে আটক দেখিয়েছে পুলিশ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক