বরগুনায় ইউপি সদস্যকে ‘পুড়িয়ে হত্যা’

দরজার নিচ দিয়ে পেট্রোল ছড়িয়ে ঘরে আগুন দেওয়া হয় বলে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা।

বরগুনা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 August 2022, 12:08 PM
Updated : 11 August 2022, 12:08 PM

বরগুনার বেতাগী উপজেলায় এক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ঘরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

ঘরে আগুন দিতে দেখেছেন দাবি করে পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেছেন, তাকে পরিকল্পিতভাবে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত ফারুক আহমেদ শামিম (৩২) উপজেলার সরিষামুড়ী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য।

ভাই রফিকুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার রাতে তারা সবাই ঘুমিয়ে ছিলেন। তার বড় বোন হঠাৎ ঘরের দরজায় আগুন দেখে চিৎকার করেন।

“বোন একটি লোককে দৌড়ে পালিয়ে যেতে দেখেন।”

রফিকুল বলেন, “ভাই আগুন থেকে তার স্ত্রী ও দুই শিশুসন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ হয়। ভাইয়ের দুই হাত, পিঠ, ঘাড় ও মাথার চুলসহ শরীরের ৬০ শতাংশ দগ্ধ হয়। ভাবিও দগ্ধ হন। প্রতিবেশীরা এসে ভাই ও ভাবিকে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করেন।”

দগ্ধ ইউপি সদস্য ও তার স্ত্রী প্রথমে বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে ইউপি সদস্যকে ঢাকা শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে পাঠানো হলে বৃহস্পতিবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান বলে জানান ভাই রফিকুল।

পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে পরিকল্পিতভাবে আগুন দেওয়ার আলামত পেয়েছে।

বেতাগী থানার পরিদর্শক শাহ আলম বলেন, খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ যায়।

“দরজার নিচ দিয়ে পেট্রোল ছড়িয়ে ঘরে আগুন দেওয়া হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। শুকনো কাপড় থেকে আগুন ঘরের মধ্যে দ্রুত ছড়িয়ে যায়।”

এখনও থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি পরিবার। অভিযোগ পেলে পুলিশ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান পরিদর্শক শাহ আলম।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক