সম্পর্ক রক্ষায় কঠিন হওয়া

‘কঠিন প্রেম’ বলাটা যত সহজ বাস্তবে ততটা সহজ নয়।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 July 2019, 12:30 PM
Updated : 3 July 2019, 12:30 PM

সঙ্গীর ভালোর জন্যই আমরা অনেক সময় শক্ত হই বা কঠোর আচরণ করি। এতে তাৎক্ষণিকভাবে খারাপ লাগলেও ভবিষ্যতের জন্য ভালো।

সম্পর্ক-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে সম্পর্কে ভালোবাসা ও বন্ধুত্বের অবদান কেমন সে সম্পর্কে জানানো হল।

সত্যিকার ভাবেই ভালোবাসুন: সঙ্গীর প্রতি ভালোবাসা থাকলে জীবনের অনেকটা কঠিন পথ সুন্দর ভাবে পাড়ি দেওয়া যায়। এ থেকে বোঝা যায় যে, আপনি আপনার সম্পর্কের বিষয়ে সচেতন ও সঙ্গী বিপথে গেলে তাকে তার ভুল দেখিয়ে দিতে পিছপা হন না। অর্থাৎ, তাকে সব ধরনের খারাপ থেকে রক্ষা করতে সচেষ্ট থাকেন, এটাই তো প্রকৃত ভালোবাসা।

বাস্তবতা: কঠিন প্রেম মানে একে অপরের ভুলের প্রতি অন্ধ থাকবেন তা কিন্তু নয়। প্রত্যেকেরই কিছুনা কিছু ভুল ত্রুটি থাকে। দুজনে সুন্দরভাবে একে অপরের ভুল দেখিয়ে সেটা ঠিক নিলে অনেক সমস্যা কমে যায়। কঠিন ভালোবাসা সম্পর্কের বাস্তব দিক তুলে ধরে।

বন্ধুত্ব: সত্যিকার ভালোবাসার মূল হল বন্ধুত্ব, যা সম্পর্ক জোরালো হতেও সাহায্য করে। সম্পর্ক মানে কেবল একে অপরের সঙ্গে অন্তরঙ্গভাবে সময় কাটানো বা আনন্দ হাসি ঠাট্টায় সময় কাটানো না।

কোনো সম্পর্কই ভালো বন্ধুত্ব ও বোঝাপড়া ছাড়া টিকতে পারে না।

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক