‘অ্যাভাটার ২’: মুক্তির আগেই আয়ের হিসাব-নিকাশ

ডিসেম্বরেই মুক্তি পাবে ‘অ্যাভাটার: দ্য ওয়ে অব ওয়াটার’।

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Dec 2022, 08:48 AM
Updated : 1 Dec 2022, 08:48 AM

হলিউড নির্মাতা জেমন ক্যামেরন পরিচালিত ‘অ্যাভাটার: দ্য ওয়ে অব ওয়াটার’ মুক্তির সপ্তাহ দুয়েকের মতো বাকি থাকতেই সিনেমাটির ব্যবসা নিয়ে শুরু হয়ে গেছে হিসাব-নিকাশ।

ধারণা করা হচ্ছে, মুক্তির প্রথম সপ্তাহেই ‘অ্যাভাটার’র সিক্যুয়েল সিনেমাটি তুলে নেবে কমপক্ষে দেড়শো মিলিয়ন ডলার, এমনকি সেটি বেড়ে ১৭৫ মিলিয়ন ডলার পর্যন্তও পৌঁছাতে পারে।

সিনেমা নিয়ে নানা ধরনের ট্র্যাকিং থেকে এর আয়-রোজগারের এই চিত্র উঠে এসেছে বলে ভ্যারাইটি ম্যাগাজিন জানিয়েছে।

২০০৯ সালে ‘অ্যাভাটার’ মুক্তির পরই এর সিক্যুয়েল আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন নির্মাতা জেমস ক্যামেরন। এর মধ্যে সিনেমার দৃশ্য ধারণ নিয়ে জটিলতা হয়েছে সাত বার। মুক্তির তারিখও পিছিয়েছে কয়েক দফা। অবশেষে দর্শকদের ১৩ বছরের অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে ১৬ ডিসেম্বর।

সিনেমাটির গল্প লিখেছেন জেমস ক্যামেরন, সেইসাথে তিনি পরিচালক ও প্রযোজকও। সহ-প্রযোজক জন ল্যান্ডু।

১৩ বছর আগে অ্যাভাটারের প্রথম কিস্তি যখন পর্দায় আসে, তখন সেটি প্রথম সপ্তাহে আয় করে ৭৭ মিলিয়ন ডলার। শেষপর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ২ দশমিক ৭ বিলিয়ন আয় করেছিল সিনেমাটি। 

ভ্যারাইটি বলছে, ২০০৯ সালের ওই পরিসংখ্যান মহামারী পরবর্তী সময়ে বক্স অফিসের সঙ্গে মেলানো কঠিন হবে। কারণ এর মাঝে ১৩ বছরই শুধু পেরিয়ে যায়নি, কোভিডের পর বক্স অফিসের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি, আগের অবস্থায় যেতে যা এখনও লড়াই করছে। তাছাড়া রাশিয়ার মতো বড় বাজার হলিউডের জন্য বন্ধ হয়ে গেছে।

এদিকে রাশিয়া বন্ধ হলেও চীনের বাজারে অ্যাভাটার-২ ঢোকার অনুমতি পেয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে রাজনৈতিক উত্তেজনা বেড়ে যাওয়াও চীনের বাজার পাওয়াও যেখানে কঠিন ছিল।

Also Read: অ্যাভাটার ২: চোখ ধাঁধানো ট্রেইলারে নতুন যুদ্ধের বার্তা

Also Read: অ্যাভাটার ২: নতুন ট্রেইলারে জীবন্ত না’ভিদের জলের জগৎ

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাগাজিন জিকিউকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জেমন ক্যামেরন বলেছেন, “অ্যাভাটার: দ্য ওয়ে অব ওয়াটার নির্মাণে অনেক খরচ হয়েছে। ভালো ব্যবসা করতে হলে সব মার্কেটে সিনেমটির ঢোকা প্রয়োজন। না হলে এই সিনেমা ইতিহাসে সবচেয়ে খারাপ ব্যবসার উদাহরণ হতে পারে।

“যদি সিনেমাটি মুভি জগতের ইতিহাসে তৃতীয় বা চতুর্থ বা সর্বোচ্চ আয় করা সিনেমার তালিকায় জায়গা করে নেয়, তাহলে বুঝতে হবে সিনেমাটি তার খরচ তুলে আনতে পেরেছে।”

চলতি মাসেই সিনেমাটির দুটি ট্রেইলার প্রকাশ পেয়েছে। সিনেম্যাটোগ্রাফি আর ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের চমকে না’ভিদের জাদুকরী জগৎ জীবন্ত হয়ে উঠেছে সেখানে।

‘প্যানডোরা’ নামের কাল্পনিক সেই গ্রহ থেকে অ্যাভাটারের দ্বিতীয় কিস্তির গল্পকে নির্মাতা জেমন ক্যামেরন নিয়ে যাচ্ছেন সাগরের তলদেশে।

কর্নেল কোয়ারিচের ষড়যন্ত্র থেকে প্যানডোরাকে বাঁচানোর নতুন যুদ্ধ ঘিরে আবর্তিত হয়েছে ‘অ্যাভাটার: দ্য ওয়ে অব ওয়াটার’ এর গল্প।

অ্যাভাটারের প্রথম গল্পের অভিনয়শিল্পী স্যাম ওয়ার্থিংটন, জো সালডানা আছেন এবারেও। ‘খল’ চরিত্রে কর্নেল কোয়ারিচ হয়ে প্রত্যাবর্তন করছেন স্টিফেন ল্যাং। নতুন যুক্ত হয়েছেন জেমস ক্যামেরনের টাইটানিকের নায়িকা কেট উইন্সলেট।

নতুনদের মধ্যে আরও আছেন মিশেল ইয়ো, ক্লিফ কার্টিস, জোয়েল ডেভিড মুর, এডি ফ্যালকো ও জেমাইন ক্লেমেন্ট।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক