এখন পাসপোর্ট দিয়েই ব্যাংক হিসাব খুলতে পারবেন প্রবাসীরা

এর আগে প্রবাসীদের ব্যাংক হিসাব খুলতে ওই দেশে থাকা বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সত্যায়িত করে আনতে হত।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 July 2022, 05:52 PM
Updated : 27 July 2022, 05:52 PM

বৈদেশিক মুদ্রার সরবরাহ বাড়াতে শুধু পাসপোর্ট দিয়েই প্রবাসীদের ব্যাংক হিসাব খুলতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বুধবার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন প্রবাসীরা শুধু পাসপোর্ট দেখিয়েই দেশে কার্যরত যে কোনো বাণিজ্যিক ব্যাংকে ব্যাংক হিসাব পরিচালনা করতে পারবেন, বিদেশ থেকে বা দেশে এসে।

দূতাবাসের সত্যায়নের শর্ত তুলে দিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, “বিদেশে প্রবাসী ব্যক্তিদের জন্য বাংলাদেশে কার্যরত তফসিলি ব্যাংকে হিসাব খোলার সময় অন্যান্য বিষয়ের সাথে যাচিত দলিলাদি বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে সত্যায়নের শর্ত আরোপ করা হয়ে থাকে, যা বাংলাদেশ ফিন্যানসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের কোনো নির্দেশনায় উল্লেখ নেই।

“বর্তমানে বাংলাদেশি নাগরিকদের মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) ও ই-পাসপোর্ট ইস্যু করা হয় নির্দিষ্ট যাচাই প্রক্রিয়া অনুসরণ করে। তাই, বিদেশে অবস্থানরত প্রবাসী ব্যক্তিদের হিসাব খোলার ক্ষেত্রে বাংলাদেশে কার্যরত তফসিলি ব্যাংক কর্তৃক যাচিত দলিলাদি সংশ্লিষ্ট দূতাবাস হতে সত্যায়নের আবশ্যকতা নেই।”

এর আগে নিয়ম অনুযায়ী প্রবাসীদের ব্যাংক হিসাব খুলতে ওই দেশে থাকা বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সত্যায়িত করে আনতে হত।

বৈদেশিক মুদ্রায় পরিচালনা করতে তিন ধরনের ব্যাংক হিসাব খোলার সুযোগ রয়েছে প্রবাসীদের - এফসি, এনএফসিডি ও আরএফসিডি অ্যাকাউন্ট।

এরমধ্যে বিদেশ যাওয়ার আগে এফসি হিসাব খুলে তা পরিচালনা করতে দেশ থেকে কাউকে নমিনি ঠিক করতে পারেন প্রবাসীরা। ওই হিসাবে আসা বৈদেশিক মুদ্রা স্থানীয় মুদ্রায় রূপান্তরের পর তা ব্যবহার করতে ব্যাংক হিসাব পরিচালনা করতে পারেন প্রবাসীর নমিনি।

বিদেশ থেকে ফিরে সঙ্গে থাকা বৈদেশিক মুদ্রা জমা দিয়েও ব্যাংক হিসাব খোলার সুযোগ রয়েছে প্রবাসীদের।

প্রায় সব দেশেই প্রবাসীরা যে এলাকায় বসবাস করেন বা কর্মস্থলের এলাকাগুলো থেকে বাংলাদেশ মিশন অনেক দূরে অবস্থিত। এতে দূতাবাস সংক্রান্ত কোনো কাজে তাদের ছুটি নিয়ে এক শহর থেকে আরেক শহরে যেতে হয়। এতে বিড়ম্বনার পাশাপাশি সময় ও অর্থ খরচ বেশি হয় প্রবাসীদের।

এজন্য সময় বাঁচাতে প্রবাসীরা অনেক দিন ধরেই শুধু পাসপোর্ট দিয়ে ব্যাংক হিসাব পরিচালনা করার সুযোগ চেয়ে আসছেন। তারা যুক্তি হিসেবে বলেছেন, পাসপোর্ট করার সময় রাষ্ট্রের কয়েকটি সংস্থা তদন্ত ও যাচাই-বাছাই করে। এমআরপি পাসপোর্টে আরও বেশি তথ্য থাকে। তাই পাসপোর্টই ব্যাংক হিসাব খোলার জন্য যথেষ্ট হওয়া উচিৎ।

গত ২৫ জুলাই গভর্নরের সঙ্গে অনুষ্ঠিত ব্যাংকার্স সভায় বিষয়টি আলোচনায় উঠে। সেদিন বৈঠকে গভর্নর জানিয়েছিলেন শুধু পাসপোর্ট দিয়েই প্রবাসীরা ব্যাংক হিসাব পরিচালনা করতে পারবেন বলে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা সাংবাদিকদের অবহিত করেছিলেন।

এর দুই দিন পরেই কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই ইস্যুতে সার্কুলার জারি করলো।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক