‘২০২৮ সালের আগে কোনো নির্বাচন নয়’

“তারা যদি আন্দোলনের নামে নাশকতা, নৈরাজ্য ও অগ্নি সন্ত্রাস করে তাহলে তাদেরকে চিরকালের জন্য নির্বাসন দেয়া হবে।”

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Jan 2024, 03:01 PM
Updated : 30 Jan 2024, 03:01 PM

২০২৮ সালের আগে আর কোনো নির্বাচন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। 

মঙ্গলবার বিকালে দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জেলা পরিষদ সুপার মার্কেট চত্বরে অনুষ্ঠিত ‘শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশে’ সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “বিএনপি নির্বাচনের কথা বলছে এবং আমরাও নির্বাচনের কথা বলি। নির্বাচন অবশ্যই হবে এবং তা হবে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের মেয়াদ শেষে, ২০২৮ সালের আগে নয়। কেননা দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সংবিধান সম্মতভাবে স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

“তাই এই জাতীয় সংসদের সাংবিধানিক বৈধতা রয়েছে। বিএনপি আজ দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনের শুরুর দিনে কালো পতাকা উড়িয়ে প্রমাণ করেছে বিএনপি নামক অগণতান্ত্রিক দলটির রাজনৈতিক দাফন সুসম্পন্ন হয়েছে। তাই তারা আর কোনো দিন নির্বাচন করা তো দূরের কথা, রাজপথে থাকার গণতান্ত্রিক অধিকার হারিয়েছে।”

মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “আওয়ামী লীগ আন্দোলনে বিশ্বাসী এবং সকল দলের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমরা চাই বিএনপি গণতান্ত্রিকভাবে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করুক। কিন্তু তারা যদি আন্দোলনের নামে নাশকতা, নৈরাজ্য ও অগ্নি সন্ত্রাস করে তাহলে তাদেরকে চিরকালের জন্য নির্বাসন দেয়া হবে।” 

সভায় নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম বলেন, “বিএনপি বারবার পরাজিত ও জনগণ থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। তারপরও তারা কখনো পরাজয় ও গণপ্রত্যাখ্যান থেকে শিক্ষা গ্রহণ করেনি। তারা যে বারবার ভুল করে যাচ্ছে এ কথাও তারা স্বীকার করে না।” 

নগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি খোরশদ আলম সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ও হাসান মুরাদ বিপ্লব।