চট্টগ্রামের যুবদল সভাপতি দীপ্তি সংঘর্ষের মামলায় গ্রেপ্তার

মঙ্গলবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে কুমিল্লা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

চট্টগ্রাম ব্যুরোকুমিল্লা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Jan 2023, 05:35 AM
Updated : 18 Jan 2023, 05:35 AM

চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে বিএনপিকর্মীদের সংঘর্ষের মামলায় মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশারফ হোসেন দীপ্তি এবং বিএনপির তিন কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে কুমিল্লা থেকে দীপ্তিকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান চট্টগ্রাম নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) নোবেল চাকমা।

তিনি বুধবার সকালে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের মাধ্যমে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সকালে তাকে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় হওয়া মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে।”

গ্রেপ্তার অপর তিন বিএনপিকর্মী হলেন- কুমিল্লার আবদুর রহমান, হাবিবুর রহমান ও আরজু।

দীপ্তির মেয়ে মার্জিয়া জাবিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘একটি মামলার কাজে’ বুধবার উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা ছিল তার বাবার। সেজন্য মঙ্গলবার তিনি চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন।

Also Read: চট্টগ্রামে সংঘর্ষ: বিএনপির কয়েকশ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পুলিশে চার মামলায়

“রাতে মহাসড়কের পাশে একটি হোটেলে যাত্রাবিরতিতে খাওয়ার সময় কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।”

মার্জিয়া বলেন, রাত ১২টার দিকে গ্রেপ্তার হওয়ার পর তার বাবা পুলিশের অনুমতি নিয়ে বাসায় ফোন করে খবরটি জানিয়েছেন। সে সময় তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছিলেন।

গ্রেপ্তার দীপ্তিকে বুধবার বিকালে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আবদুল হালিমের আদালতে হাজির করা হলে তিনি এই বিএনপি নেতাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

 নোবেল চাকমা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কোতোয়ালি থানার তিন মামলায় গ্রেপ্তার মোশারফ হোসেন দীপ্তিকে আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছিল। আজ শুনানি হয়নি। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।”

দশ দফা দাবি আদায় এবং বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার চট্টগ্রামে নাসিমন ভবনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করেন দলটির নেতাকর্মীরা।

ওই সময়ে নগরীর কাজীর দেউড়ি মোড়ে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি কর্মীদের সংঘর্ষ হয় এবং ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভের সময় ট্রাফিক পুলিশের একটি মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়া হয়; সড়কে যানবাহন ও দোকান ভাঙচুর করা হয়।

পরে সংঘর্ষ ও ভাংচুরের ঘটনায় বন্দরনগরীর কোতোয়ালি থানায় চারটি মামলা করে পুলিশ। এর মধ্যে তিনটি মামলার যুবদল নেতা দীপ্তিকে আসামি করার কথা জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

এদিকে চট্টগ্রামের মাদারবাড়ি এলাকায় বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবে রহমান শামীমের বাসায়ও পুলিশ অভিযান চালিয়েছে বলে দলের নেতারা জানিয়েছেন।

 চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বে থাকা মো. ইদ্রিস বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, গভীর রাতে শামীমের বাসায় পুলিশ তল্লাশি চালায়। তবে শামীম তখন বাসায় ছিলেন না।

ইদ্রিস জানান, শামীমের বাসায় ‘তল্লাশির নামে হয়রানি’ এবং যুবদল নেতা মোশারফ হোসেন দীপ্তিকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক