সতীর্থদের আগ্রাসী ক্রিকেটের বার্তা মইনের

আক্রমণাত্মক ক্রিকেটের অভাব বিশ্বকাপে তাদের ভোগাচ্ছে বলে মনে করেন ইংলিশ অলরাউন্ডার মইন আলি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Oct 2023, 12:33 PM
Updated : 25 Oct 2023, 12:33 PM

বিশ্বকাপে এসে হঠাৎ করে যেন ছন্দ হারিয়ে ফেলেছে ইংল্যান্ড। একের পর এক ম্যাচ হেরে পয়েন্ট টেবিলে তলানির দিকে আছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ঠিকমতো আগ্রাসী ক্রিকেট খেলতে পারছেন না বলেই তাদের এই অবস্থা বলে মনে করেন মইন আলি। দলকে তাই আরও বেশি আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলার বার্তা দিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

গত বছর ব্রেন্ডন ম্যাককালাম টেস্ট দলের কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং ও আগ্রাসী মানসিকতার কৌশল বেছে নেয় ইংল্যান্ড। ম্যাককালামের ডাক নাম ‘বাজ’-এর সঙ্গে মিলিয়ে এটিকে বলা হয় ‘বাজবল’। গত এক-দেড় বছরে ক্রিকেট বিশ্বে তুমুল চর্চিত এই কৌশল। এতে বেশ সফলও তারা।

২০১৫ বিশ্বকাপের পর থেকে ওয়ানডেতেও আগ্রাসী ঘরনার ক্রিকেট খেলছে ইংল্যান্ড। সেই পথ ধরেই তারা চ্যাম্পিয়ন হয় গত বিশ্বকাপে। কিন্তু চলতি আসরে যেন উল্টোরথে চলছে ইংলিশরা। প্রথম চার ম্যাচের তিনটিই হেরে সেমি-ফাইনালের স্বপ্ন ঝুলছে অনিশ্চয়তার সুতোয়।

সবচেয়ে বড় দুর্ভাবনার জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের ব্যাটিং। বাংলাদেশের বিপক্ষে জেতা ম্যাচে ৩৬৪ রান করলেও বাকি তিনটিতে ছুঁতে পারেনি তিনশ। বিশেষ করে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২১৫ ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৭০ রানেই গুটিয়ে যায় জস বাটলারের দল।

বেঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে ইংল্যান্ড। আগের দিন মইন বললেন, ঘুরে দাঁড়াতে হলে আরও বেশি আগ্রাসী ক্রিকেট খেলতে হবে তাদের।

“টেস্ট ক্রিকেটে বাজবল। ওয়ানডে ক্রিকেট ভিন্ন, আমরা সব সময়ই ভিন্নভাবে খেলছি। আমরা ২০১৫ সাল থেকে আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলছি এবং বেশ ভালো করেছি। সম্ভবত এই ধরনের ক্রিকেটের অভাব এই টুর্নামেন্টে আমাদের কিছুটা ভোগাচ্ছে।”

"আমার মতে, আমরা সেভাবে খেলিনি এবং আমাদের সেভাবে খেলতে হবে। সত্যিকারের আক্রমণাত্মক দল হতে হবে, জানি আমরা তা হতে পারি।”