আবারও উজ্জ্বল চান্দিমাল, নওয়াজের প্রথম ৫ উইকেট

মাঠে সময়টা দুর্দান্ত কাটছে দিনেশ চান্দিমালের। ব্যাট হাতে খেলছেন দারুণ সব ইনিংস। পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার হয়ে একমাত্র ফিফটি করা এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান দ্বিতীয়ভাগেও ছড়িয়েছেন আলো। সঙ্গে ওশাদা ফার্নান্দো ও কুসল মেন্ডিসের পঞ্চাশ ছাড়ানো ইনিংসে বড় লিড পেয়েছে লঙ্কানরা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 July 2022, 01:39 PM
Updated : 18 July 2022, 02:05 PM

গলে সিরিজের প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিন ৯ উইকেটে ৩২৯ রান নিয়ে শেষ করেছে স্বাগতিকরা। ৪ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামা দলটি এখন এগিয়ে ৩৩৩ রানে।

সবশেষ টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম দ্বিশতক করেন চান্দিমাল। এর আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে হাঁকান সেঞ্চুরি। পাকিস্তানের বিপক্ষেও হাসছে তার ব্যাট। প্রথম ইনিংসে ৭৬ রানের পর এবার ২ ছক্কা ও ৫ চারে ৮৬ রান নিয়ে আছেন অপরাজিত। ওশাদা করেন এক ছক্কা ও ৬ চারে ৬৪ রান। আর মেন্ডিসের ব্যাট থেকে আসে ৯ চারে ৭৬ রান।

স্পিন সহায়ক উইকেটে বল হাতে উজ্জ্বল দিন পার করেন মোহাম্মদ নওয়াজ। চতুর্থ টেস্ট খেলতে নেমে প্রথমবারের মতো পাঁচ উইকেটের স্বাদ পান তিনি। বাঁহাতি স্পিনে ৫টি শিকার ধরেন ৮৮ রান দিয়ে। টেস্টে তার আগের সেরা বোলিং ২/৩২।

১ উইকেটে ৩৬ রান নিয়ে সোমবার খেলতে নামা শ্রীলঙ্কা নাইটওয়াচম্যান কাসুন রাজিথাকে হারায় দ্রুত। ওই ধাক্কা সামাল দিয়ে দলকে টানেন ওশাদা ও মেন্ডিস। তৃতীয় উইকেটে দুইজনে গড়েন ১৭৬ বল স্থায়ী ৯১ রানের জুটি।

ওশাদার বিদায়ে ভাঙে তাদের প্রতিরোধ। ৭৮ বলে ফিফটি করা লঙ্কান ওপেনার ফেরেন ইয়াসির শাহর বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে। কয়েক ওভার পর অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে ফিরিয়ে দেন নওয়াজ।

টেস্টে প্রথমবার পাঁচ উইকেট নিলেন মোহাম্মদ নওয়াজ (ডানে)। ছবি: আইসিসি

৯২ বলে ফিফটি করা মেন্ডিস বোল্ড হয়ে যান ইয়াসিরের চোখধাঁধানো এক ডেলিভারিতে। ব্যাটসম্যানের লেগ স্টাম্পের বাইরে পড়ে বল স্পিন করে আঘাত হানে অফ স্টাম্পে!

১৭৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে তারা তখন অল্পতে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায়। বিপদে পড়া দলের হাল ধরতে পারেননি ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকভেলাও। এক প্রান্ত আগলে রেখে লড়াই চালিয়ে চান চান্দিমাল। শেষের ব্যাটসম্যানদের নিয়ে ছোট কিন্তু কার্যকর জুটি গড়েন তিনি।

রমেশ মেন্ডিসকে ফিরিয়ে পাঁচ উইকেট পূর্ণ করেন নওয়াজ। ভাঙে ৩২ রানের জুটি। মাহিশ থিকশানার সঙ্গে চান্দিমালের ৪১ রানের জুটিতে তিনশ ছাড়ায় শ্রীলঙ্কার রান।

চান্দিমাল ২৩তম টেস্ট ফিফটি স্পর্শ করেন ৭১ বলে। এরপরই তাকে ফেরানোর সুযোগ পেয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু ৬৮ রানে থাকা ব্যাটসম্যানের ফিরতি ক্যাচ মুঠোয় জমাতে পারেননি পেসার হাসান আলি।

শেষ উইকেটে প্রবাথ জয়াসুরিয়াকে নিয়ে দলের রান বাড়াচ্ছেন চান্দিমাল। ২১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে দিন শেষ করেছে তারা। চতুর্থ দিনে দলের লিড কত বাড়াতে পারেন তারা, সেটাই এখন দেখার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ২২২

পাকিস্তান ১ম ইনিংস: ২১৮

শ্রীলঙ্কা ২য় ইনিংস: ৯৬ ওভারে ৩২৯/৯ (আগের দিন ৩৬/১) (ওশাদা ৬৪, রাজিথা ৭, মেন্ডিস ৭৬, ম্যাথিউস ৯, চান্দিমাল ৮৬*, ধনাঞ্জয়া ২০, ডিকভেলা ১২, রমেশ ২২, থিকশানা ১১, জয়াসুরিয়া ৪*; আফ্রিদি ৭-২-২১-০, নওয়াজ ২৮-২-৮৮-৫, সালমান ১৬-১-৫৩-০, ইয়াসির ২৯-২-১২২-৩, হাসান ১০-৩-১৫-১, বাবর ১-০-৯-০, নাসিম ৫-০-২০-০)

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক