নিজের ও লিটনের ব্যর্থতার প্রসঙ্গে রিজওয়ান, ‘আমরা মানুষ, যন্ত্র নই’

বিপিএলে এবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে ৪ ইনিংসে ৬৪ রান করেছেন রিজওয়ান, লিটন করেছেন ৫ ইনিংসে ৩৭।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Feb 2024, 11:08 AM
Updated : 5 Feb 2024, 11:08 AM

 ‘এত মাইক আমি পাকিস্তানে কখনও দেখিনি’- পোডিয়ামে একের পর এক মাইক্রোফোন রাখতে দেখে বললেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। প্রশ্নোত্তর পর্ব শুরুর আগে মজা করে আরও একবার বললেন, ‘আর মাইক নেই…?’ বোঝা গেল, বেশ খোশ মেজাজেই আছেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান। 

তবে ব্যাট হতে মোটেও চেনা চেহারায় নেই রিজওয়ান। এখনও পর্যন্ত একইরকম অচেনা রূপে আছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে তার উদ্বোধনী জুটির সঙ্গী লিটন কুমার দাসও। তাদের ব্যাটিং ফর্ম নিয়ে তাই প্রশ্ন হলো স্বাভাবিকভাবেই। পাকিস্তানি ক্রিকেটার তুলে ধরলেন ক্রিকেটীয় বাস্তবতা। 

দ্বিতীয়বারের মতো এবার কুমিল্লার হয়ে বিপিএল খেলতে এসেছেন রিজওয়ান। গত আসরে প্রথম ম্যাচ থেকেই রানের ফোয়ারা ছুটেছে তার ব্যাটে। দশ ম্যাচে পঞ্চাশের বেশি গড়ে ৩৫১ রান করে কুমিল্লার হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ে বড় অবদান রেখেছিলেন পাকিস্তানি কিপার-ব্যাটসম্যান।

এবার ঠিক বিপরীত। চার ম্যাচে একবারও বিশ পেরোয়নি রিজওয়ানের রান। স্রেফ ৮৫.৩৩ স্ট্রাইক রেট ও ২১.৩৩ গড়ে তার সংগ্রহ মোটে ৬৪ রান। এর মধ্যে সবশেষ ম্যাচে স্রে ৭৩ রানের লক্ষ্যে ২৪ বলে তিনি করেন অপরাজিত ১৬ রান। হার না মানা এই ইনিংসের কারণে কিছুটা ভদ্রস্থ দেখাচ্ছে তার গড়।  

রিজওয়ানের পারফরম্যান্স ভালো না হলেও বোলারদের নৈপুণ্যে এখন পর্যন্ত খুব খারাপ করেনি কুমিল্লা। পাঁচ ম্যাচে তাদের জয় তিনটি। হেরে যাওয়া দুই ম্যাচেও ব্যবধান বেশি নয়। মিরপুরে বুধবার খুলনা টাইগার্সের মুখোমুখি হবে তারা। 

বিপিএলের ঢাকার দ্বিতীয় পর্ব শুরুর আগে মিরপুরের একাডেমি মাঠে সোমবার প্রথম অনুশীলন করে কুমিল্লা। এর ফাঁকে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রিজওয়ান বললেন, নিজের পারফরম্যান্সে আক্ষেপের চেয়ে দলের ফলাফলের সন্তুষ্টিই তার বেশি। 

“আমি মানুষ, কোনো যন্ত্র নই। দলের জন্য সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছি। দলের ফলাফলে আমি খুশি। আমি ও দলের সবাই এটিই চাই। আমার পারফরম্যান্সের কথা বললে, আমি যেমন চাই, তেমন হয়নি। আমার কাছে লোকের প্রত্যাশাও এমন নয়। তবে আমি যন্ত্র নই। কঠোর পরিশ্রম করছি, নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করছি।” 

রিজওয়ানের মতোই কথা বলছে না লিটনের ব্যাটও। বিপিএলে প্রথমবার কোনো দলকে নেতৃত্ব দেওয়া ব্যাটসম্যান পাঁচ ম্যাচে করেছেন স্রেফ ৩৭ রান। সবশেষ তিন ম্যাচে দুই অঙ্ক ছুঁতে পারেননি স্টাইলিশ এই ওপেনার।

রান না পাওয়ার চেয়েও বেশি চোখে লাগছে লিটনের ব্যাটিংয়ের ধরন। প্রায় ম্যাচেই তিনি আউট হচ্ছেন তেড়েফুঁড়ে মারতে গিয়ে। কখনও ইনিংসের প্রথম বলেই ক্রিজ ছেড়ে খেলার চেষ্টা করছেন। আবার কখনও শুরুতে খোলসে ঢুকে গিয়ে চাপ সৃষ্টি করছেন নিজের ওপর। কিন্তু কোনোভাবেই সফল হচ্ছেন না। 

নিজের ছন্দ হারিয়ে খুঁজতে থাকা রিজওয়ান পাশে দাঁড়ালেন নিজের উদ্বোধনী সঙ্গীর। তার ধারণা, লিটনের রানে ফেরা স্রেফ সময়ের ব্যাপার। 

“এটি কুমিল্লার জন্য বড় প্রশ্ন যে, আমরা দুজন পারফর্ম করছি না। তবে যেটা বললাম, আমরা যন্ত্র নই, মানুষ। লিটনকে আমি দেখেছি, অনেক পরিশ্রম করছে। তবু সেই ছন্দটা ফিরে পাওয়ার ব্যাপার আছে।” 

“লিটনকে আমার মনে হয় একজন ‘সাউন্ড’ ক্রিকেটার। তার আউটগুলো দেখেন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে সে দুর্ভাগা ছিল। তবে যা দেখছি, সে সবসময় পরিশ্রম করছে। আশা করি, সে পরের ম্যাচে পারফর্ম করবে।”