‘ভুল শুধরে’ তানজিদের ঝড়ো সেঞ্চুরি

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের প্লে-অফ নিশ্চিত করার ম্যাচে বড় অবদান রেখে তানজিদ হাসান বললেন, প্রতিনিয়ত আরও উন্নতির চেষ্টা করে চলেছেন তিনি।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Feb 2024, 02:20 PM
Updated : 20 Feb 2024, 02:20 PM

এবারের বিপিএলের শুরু থেকেই রান পাচ্ছেন তানজিদ হাসান। কিন্তু বড় করতে পারছিলেন না ইনিংস। অবশেষে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ঘুচে গেল সেই আক্ষেপ। বিধ্বংসী সেঞ্চুরিতে দলকে জেতাতে এবং প্লে-অফের টিকেট পাইয়ে দিতে রাখলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। পরে সংবাদ সম্মেলনে বললেন, আগের ম্যাচের ভুল পরের ম্যাচে শুধরে নেওয়ার চেষ্টাতেই ধরা দিয়েছে সাফল্য।

নিজ শহরে মঙ্গলবার বিপিএলের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচটি খেলেছে চট্টগ্রাম। প্লে-অফের টিকেট পেতে এদিন জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবার সুযোগ ছিল না তাদের। তানজিদের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে তা অনায়াসেই পেয়েছে চট্টগ্রাম।

১১৬ রান করে জয়ের নায়ক তানজিদ। ৮টি করে চার-ছক্কায় তিনি সাজিয়েছেন নিজের ইনিংস। বিপিএলে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এক ইনিংসে এর চেয়ে বেশি রান আছে স্রেফ দুজনের- তামিম ইকবাল (১৪১) ও সাব্বির রহমান (১২২)।

৬৫ বলের ইনিংসে তানজিদ যে দৃঢ়তা দেখিয়েছেন, আগের ম্যাচগুলোতে সেটারই যেন অভাব ছিল। তৃতীয় ম্যাচে ৪৯ রানের ইনিংস খেলা বাঁহাতি ওপেনার এক ম্যাচ পর আউট হন ঠিক পঞ্চাশ রানে।

পরের চার ম্যাচে তিনবার দুই অঙ্ক ছুঁলেও বড় হয়নি তানজিদের ইনিংস। মঙ্গলবারের আগে দুর্দান্ত ঢাকার বিপক্ষে সবশেষ ম্যাচে তিনি করেছিলেন ৭০ রান, ৫১ বলে।

এবার ছাপিয়ে গেলেন আগের সবকিছু। দশম ওভারে তিনি ৩২ বলে পূর্ণ করেন ফিফটি। ছন্দ ধরে রেখে ১৭তম ওভারে পৌঁছে যান জাদুকরী তিন অঙ্কে। পঞ্চাশ থেকে একশতে যেতে তার লাগে স্রেফ ২৬ বল। 

সেঞ্চুরির পর একটি করে চার-ছক্কা মারেন তানজিদ। পরে ওয়েইন পার্নেলের নিখুঁত ইয়র্কারে থামে তার ইনিংস। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তরুণ ওপেনার বললেন, আগের ভুল শুধরে নেওয়ার চেষ্টা থেকেই এই সেঞ্চুরি। 

“আমি কখনও এভাবে চিন্তা করিনি। আগেও বলেছি, আমি ভুল করছিলাম, সেট হয়েও আউট হয়ে যাচ্ছিলাম। তাই চেষ্টা করেছি ভালো শুরু করলে সেটা আমি বড় করব। এটাই আজকে চেষ্টা করেছি।”

“প্রত্যেকটা ম্যাচে কিন্তু কিছু ভুল থাকে, কিছু ভালো থাকে। আমি চেষ্টা করি, ভুলটা আর পুনরাবৃত্তি না করতে। সবসময় আমার এটাই চেষ্টা থাকবে, ভুল নিয়ে কাজ করতে আর পুনরায় ভুলটা না করতে।”

সেঞ্চুরির সৌজন্যে এবারের আসরে রানের তালিকায় এক নম্বরে উঠে গেছেন তানজিদ। ১১ ম্যাচে তার সংগ্রহ ৩৮২ রান।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের জন্য গত সপ্তাহে দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। ওয়ানডে দলে থাকলেও টি-টোয়েন্টিতে জায়গা হয়নি তানজিদের। এখনও এই সংস্করণে ডাক পাওয়ার অপেক্ষায় তিনি।

দল ঘোষণার পর গত এক সপ্তাহে খেলা চার ম্যাচে তানজিদ করেছেন ২৪০ রান। একটি করে ফিফটি-সেঞ্চুরি ছাড়াও একবার চল্লিশ ছুঁয়েছেন তিনি। তাই প্রশ্ন উঠল, এর আগেই দল ঘোষণা হওয়ার আক্ষেপ আছে কিনা তার। জবাবে তানজিদ বললেন, নিজের কাজ করে যাওয়ার দিকেই তার মনোযোগ।  

“কখনোই আফসোস হয় না আমার। তারা (জাতীয় দলের নির্বাচক) যেটা ভালো মনে করেছে, সেটাই করেছে। আমার কাজ রান করা, পারফর্ম করা। আমি সেটাই করে যাব। বাকি সব আল্লাহ্‌র ইচ্ছা।”

সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নোত্তর পর্ব শুরুর আগেই তানজিদ জানান, প্লে-অফ নিশ্চিত করা জয়টি ভাষাশহীদদের উৎসর্গ করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। তার এই ঘোষণা শেষ হওয়ার পরপরই জানতে চাওয়া হলো, সেঞ্চুরিটি কাউকে উৎসর্গ করছেন কিনা?

ম্যাচ সেরার পুরস্কার গ্রহণের সময়ই একবার এই বিষয়ে বলেন তানজিদ। সংবাদ সম্মেলনে আরও একবার সেই কথা বলেন তিনি।

“আমার ছোট একটা ভাগ্নে আছে। সবসময় ওর সঙ্গে কথা হয়। মাঠে আসার আগে, এমনকি ম্যাচের আগের দিন ওর সঙ্গে কথা হয়। ও এমনকি আমাকে দেখলে, ছয় বললে ছয় দেখায়। আউট বললে আউট দেখায়। তাই আমি আমার এই সেঞ্চুরিটা ওকে উৎসর্গ করতে চাই।”