নতুন ক্যাম্পাসে দ্রুত হল করার চেষ্টা করব: জবি উপাচার্য

“এত শিক্ষার্থী যখন সাত একরের ছোট ক্যাম্পাসে ঘুরে বেড়ায়, তখন আমাদের খারাপ লাগে,” বলেন উপাচার্য।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Feb 2024, 12:26 PM
Updated : 11 Feb 2024, 12:26 PM

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের কাজ দ্রুত শেষ করার চেষ্টা চলছে জানিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক সাদেকা হালিম বলেছেন, সবার আগে যেন দ্রুত শিক্ষার্থীদের হল করা যায়, সে বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছেন তিনি।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ আয়োজিত 'বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ' শীর্ষক এক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বক্তব্য দিচ্ছিলেন উপাচার্য।

তিনি বলেন, “এত শিক্ষার্থী যখন সাত একরের ছোট ক্যাম্পাসে ঘুরে বেড়ায়, তখন আমাদের খারাপ লাগে। তারা খোলা মাঠে খেলাধুলা করবে, আড্ডা দেবে। কিন্তু সেটা এখানে হয় না। এরজন্য আমরা নতুন ক্যাম্পাসের কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করছি। সবার আগে যেন দ্রুত শিক্ষার্থী হল করা যায়, সেটার উপর নজর দেব।”

অধ্যাপক সাদেকা হালিম বলেন, “শীঘ্রই আমরা ডিনস অ্যাওয়ার্ড দেব। আমি ট্রেজারার মহাদয়কে বলেছি প্রত্যেক বিভাগ থেকে অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের তালিকা করতে। তাদের বৃত্তি দেওয়ার ব্যবস্থা করব। এছাড়া ক্যান্টিনের খাবারের মান বৃদ্ধিতে কাজ করব।”

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক হুমায়ুন কবীর চৌধুরী বলেন, “জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের যে ঘটনা, যদিও বিচ্ছিন্ন, তবুও তা কাঙ্ক্ষিত নয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের নেতা যখন তার জুনিয়র এক ছোট ভাইয়ের গায়ে হাত দেয়, তখন আমরা বিব্রত হই। ছাত্রলীগের যারা আছে, তাদের উদ্দেশে বলব, আমরা যেন জ্ঞান দ্বারা পরিচালিত হই।”

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহীম ফরাজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক এস এম আক্তার হোসেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মোস্তফা কামালও অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।