গ্রিড বিপর্যয়: বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ, তদন্ত কমিটি

কী কারণে এত বড় বিপর্যয় ঘটল, সে বিষয়ে সরকারের তরফ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Oct 2022, 06:02 PM
Updated : 4 Oct 2022, 06:02 PM

জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়ের কারণ খতিয়ে দেখতে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশের (পিজিসিবি) নির্বাহী পরিচালক (পি অ্যান্ড ডি) ইয়াকুব ইলাহী চৌধুরীর নেতৃত্বে ৬ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এছাড়া বিদ্যুৎ বিভাগকে আরও দুটি তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু।

মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে জাতীয় সঞ্চালন লাইনের পূর্বাঞ্চলে বিভ্রাটের কারণে ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, ময়মনসিংহসহ দেশের অর্ধেক অঞ্চলের বিদ্যুৎ চলে যায়।

এরপর বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা ধাপে ধাপে বিদ্যুৎ ফেরাতে কাজ শুরু করেন। রাত ১০টার দিকে ঢাকার বেশিরভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ ফেরানো সম্ভব হয়।

Also Read: গ্রিড বিপর্যয়: ঢাকাসহ দেশের বড় এলাকা বিদ্যুৎহীন

Also Read: গ্রিড বিপর্যয়: মোবাইল সেবাও বিঘ্নিত

Also Read: গ্রিড বিপর্যয়: বিদ্যুতের সঙ্গে পানির দুর্ভোগে ঢাকাবাসী

Also Read: ঢাকায় বিদ্যুৎ প্রায় স্বাভাবিক

Also Read: বিদ্যুৎ বিপর্যয় কষ্ট বাড়িয়েছে হাসপাতালের রোগীদের

Also Read: বিদ্যুৎ বিপর্যয়: ডিজেলের জন্য পেট্রোল পাম্পে দীর্ঘ লাইন

Also Read: বিদ্যুৎ বিপর্যয়: এটিএম বুথ আর কার্ড সেবাতেও বিঘ্ন

এই সময়ে বাসাবাড়িতে থাকা মানুষ পানি নিয়েও বিড়ম্বনায় পড়ে। হাসপাতালে কষ্ট বাড়ে রোগীদের। মোবাইল ফোন নেটওয়ার্কে বিভ্রাট দেখা দেয়, ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকা তুলতে ভোগান্তি পোহাতে হয় গ্রাহকদের।

কী কারণে এত বড় বিপর্যয় ঘটল, সে বিষয়ে সরকারের তরফ থেকে কিছু জানানো হয়নি। 

রাতে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ফেইসবুক পেইজে বলা হয়, “অনাকাঙ্ক্ষিত বিদ্যুৎ বিভ্রাটের জন্য বিদ্যুৎ বিভাগ আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছে। অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে বিদ্যুৎ বিভাগ ও সংশ্লিষ্টরা কাজ করছে।”

পিজিসিবির একটি এবং বিদ্যুৎ বিভাগের পক্ষ থেকে আরও দুটি তদন্ত কমিটি গঠনের উদ্যোগের কথা জানিয়ে ওই ফেইসবুক পোস্টে বলা হয়, “বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গ্রাহকদের ‘একটু ধর্য্য ধরার জন্য’ অনুরোধ করেছেন।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী রাত ১১টার দিকে তার ফেইসবুক পেইজে আরেক বার্তায় বলেন, “সম্মানিত গ্রাহকবৃন্দ, বিশেষ পরিস্থিতিতে আপনারা ধৈর্য্য ধরেছেন, গুজবে কান দেননি, আপনাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক