বাসে আগুন দিয়ে ‘ভিডিও করত তারা, সঙ্গে উল্লাস’

হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের সূত্র ধরে এক যুবদল নেতা এবং তার সহযোগীকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Dec 2023, 06:58 PM
Updated : 3 Dec 2023, 06:58 PM

অবরোধের আগের রাতে রাজধানীর গাবতলীতে বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ বলছে, এরা আগুন লাগিয়ে ভিডিও করে উল্লাস করত।

গ্রেপ্তার পাঁচজন হলেন– জুবায়ের মিয়া (২০), রাজিব ওরফে রাজু (২১), নাসিরুল ইসলাম স্বাধীন (২০), মেহেদী হাসন হৃদয় (২২) ও আবির হোসেন রাষ্ট্র (২২)।

গত শনিবার রাতে গাবতলীতে কাউন্টারের সামনে দাঁড় করিয়ে রাখা 'পদ্মালাইন' পরিবহনের একটি বাসে আগুন দেওয়া হয়।

ওই ঘটনায় বাসের চালক আবুল হোসেন বাদী হয়ে দারুস সালাম থানায় একটি মামলা করেন। বাসটি পুড়ে চার লাখ টাকার ক্ষতির কথা বলা হয় সেখানে। 

ঢাকা মহানগর পুলিশের দারুস সালাম জোনের সহকারী কমিশনার মফিজুর রহমান পলাশ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আগুন দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় জুবায়ের মিয়াকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে রোববার সন্ধ্যার পর দিয়াবাড়ি, লালকুঠি, মাজার রোড এলাকা থেকে অন্য চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “আগুন দেওয়ার ঘটনায় যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের কাছে পাওয়া মোবাইলে ভিডিও পাওয়া যায়। সেসব ভিডিওতে আগুন লাগিয়ে ভিডিও করতে করতে তাদের উল্লাস করতে দেখা গেছে। গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।” 

গাবতলীসহ আশেপাশে একাধিক আগুন দেওয়ার ঘটনায় স্থানীয় যুবদল নেতা পিয়াস এবং তার সহযোগী নুর নবীর একটি হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট পাওয়ার কথা জানিয়ে সহকারী কমিশনার মফিজুর রহমান বলেন, “কীভাবে আগুন দিতে হবে, কোন বাসে আগুন দিতে হবে এবং আগুন দিয়ে কী করতে হবে সেসব বিষয় আছে সেখানে। তাদের দুজনকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।” 

গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির সমাবেশ পণ্ড হয়ে যাওয়ার পর থেকেই দফায় দফায় হরতাল ও অবরোধ দিয়ে আসছে দলটি। এসব কর্মসূচির মধ্যে প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও যানবাহনে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটছে।