ইউরোপে জনসংযোগ সফরে নিয়ম মানার প্রতিশ্রুতি টিকটক প্রধানের

“ইইউ’র অ্যান্টিট্রাস্ট প্রধান মারগ্রেথ ভেস্টাগারের সঙ্গে দেখা করার মাধ্যমে ব্রাসেলসে টিকটক প্রধানের বৈঠকের মহড়া শুরু হয়েছে।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Jan 2023, 02:14 PM
Updated : 11 Jan 2023, 02:14 PM

ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রাইভেসি ও শিশু নিরাপত্তা বিষয়ক বিভিন্ন প্রযুক্তি নীতিমালার প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন টিকটকের প্রধান নির্বাহী শউ জি চিউ।

গেল মঙ্গলবার, বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে অবস্থিত ইইউ সদর দপ্তর পরিদর্শনে গিয়ে এই কথা বলেন চিউ।

যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ব্যক্তিগত ডেটায় চীনের কমিউনিস্ট পার্টি বা বেইজিং প্রভাবিত অন্য কোনো সংস্থার প্রবেশাধিকার আছে কি না, ওই বিষয়ে দেশটির বাড়তে থাকা শঙ্কার বিপরীতে চীনা প্রযুক্তি জায়ান্ট বাইটড্যান্স মালিকানাধীন ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপটি গত তিন বছর ধরে কাজ করছে বলে উঠে এসেছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে।

গত মাসে বাইটড্যান্সের কিছু সংখ্যক কর্মী গণমাধ্যমে তথ্য ফাঁসের উৎস খুঁজে বের করতে গিয়ে দুই মার্কিন সাংবাদিকের ব্যক্তিগত ডেটায় অনৈতিকভাবে প্রবেশ করেছেন বলে স্বীকারোক্তি দেওয়ার পর কোম্পানিটির ওপর চাপ বাড়তে থাকে।

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতিদ্বন্দ্বী প্ল্যাটফর্ম মেটা ও টুইটারের তুলনায় ইইউ’র ২৭ দেশের মধ্যে টিকটকের প্রভাব তুলনামূলক কম।

তবে, আসন্ন মাসগুলোয় বিভিন্ন শীর্ষ প্রযুক্তি জায়ান্টের প্রভাব কমানো ও অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলোর অবৈধ কনটেন্ট সরিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে তৈরি ইইউ’র কঠোর প্রযুক্তি নীতিমালার কারণে এই পরিস্থিতি বদলে যেতে পারে।

ইইউ’র অ্যান্টিট্রাস্ট প্রধান মারগ্রেথ ভেস্টাগারের সঙ্গে দেখা করার মাধ্যমে ব্রাসেলসে চিউ’র বৈঠকের মহড়া শুরু হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে রয়টার্স।

“টিকটকের সঙ্গে বৈঠকের উদ্দেশ্য ছিল, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘ডিজিটাল সার্ভিসেস অ্যাক্ট (ডিএসএ)’ ও সম্ভাব্য ‘ডিজিটাল মার্কেটস অ্যাক্ট (ডিএমএ)’ নামের নীতিমালা মেনে চলার জন্য কোম্পানিটি কীভাবে প্রস্তুত হচ্ছে।” --এক বিবৃতিতে বলেন ইইউ নির্বাহী।

“জেনারেল ডেটা প্রোটেকশন রেগুলেশন (জিডিপিআর)’ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ডেটা সংগ্রহ ও এর নজরদারি সম্পর্কিত সাম্প্রতিক সংবাদ প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রাইভেসি ও ডেটা স্থানান্তরে বাধ্যবাধকতার মতো বিষয়গুলো নিয়েও বৈঠকে কথা বলেছে দুই পক্ষ।

এদিকে, চিউ’র কাছে নিজস্ব শঙ্কার তালিকা প্রকাশ করেন ইইউ’র ‘ভ্যালুস অ্যান্ড ট্রান্সপারেন্সি কমিশনার’ ভেরা জোউরোভা। এর মধ্যে ছিল ইউরোপীয় নাগরিকদের ব্যক্তিগত ডেটা, শিশু নিরাপত্তা, প্ল্যাটফর্মে রাশিয়ার বিভিন্ন ভুল তথ্য প্রচারের পাশাপাশি রাজনৈতিক বিজ্ঞাপনে স্বচ্ছতার বিষয়টিও। 

“ইউরোপীয় ইউনিয়নের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার পাশাপাশি নিয়ন্ত্রকদের আস্থা পুনরুদ্ধারের উদ্দেশ্যে নিজস্ব প্রতিশ্রুতি পুরোপুরি কার্যকর করার বিষয়ে  আমি টিকটকের ওপর ভরসা রাখছি।” --এক বিবৃতিতে বলেন তিনি।

ইইউ’র বিচার প্রধান দিদিয়ের রেইন্ডার্স চিউকে বলেন, নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম থেকে ঘৃণাবাচক কনটেন্ট সরিয়ে টিকটক আরও বেশি ভূমিকা রাখতে পারে।

টিকটক বলেছে, তারা একটি স্বচ্ছ উপায়ে ইইউ’র নীতিমালা মেনে চলার বিষয়ে অঙ্গীকারবদ্ধ।

“এটি নিয়ে প্রস্তুত থাকা আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার।” --এক টুইটে বলেন টিকটকের ইউরোপীয় অংশের জনসম্পদ বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট থিও বারট্রাম।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক