যুক্তরাষ্ট্রের চিপ রপ্তানি নিয়মের সমালোচনায় চীন

“যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপ চীনা ও বিদেশী কোম্পানির মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতাকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করার পাশাপাশি বৈধ অধিকার ও স্বার্থের ক্ষতি করে। চীন দৃঢ়ভাবে এর বিরোধিতা করে।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 April 2024, 10:04 AM
Updated : 1 April 2024, 10:04 AM

চিপ রপ্তানি নিয়ে মার্কিন নিয়ম আরও কঠোর করার সমালোচনা করেছে চীন। দেশটির মতে, বাণিজ্যে বাধা ও চিপ শিল্পে আরও অনিশ্চয়তা তৈরি করছে যুক্তরাষ্ট্র।

গত সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনেআগে জারি করা নিষেধাজ্ঞা সংশোধন করেছে। এ সংশোধনীর ফলে মার্কিন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক চিপ ও চিপ তৈরির টুলগুলো হাতে পাওয়া কঠিন হবে চীনের জন্য। ‘দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা উদ্বেগে’র কারণে, বেইজিংয়ের চিপ শিল্পে বাধা দেওয়ার বৃহত্তর প্রচেষ্টার অংশ বলে প্রতিবেদনে লিখেছে রয়টার্স।

চীনে এনভিডিয়া ও অন্যান্য চিপ নির্মাতার নকশা করা উন্নত এআই চিপের চালান বন্ধ করতে অক্টোবরে জারি হয় নিয়মগুলো। প্রযুক্তি খাতের অগ্রগতি চীনে সামরিক শক্তি বাড়াতে সাহায্য করবে, এ উদ্বেগের ফলেই ওয়াশিংটন বেইজিংয়ের ওপর নিয়ম আরোপ করছে।

“মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় নিরাপত্তার ধারণা বাড়িয়েছে, ইচ্ছাকৃতভাবে নিয়ম সংশোধন করেছে ও নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা জোরদার করেছে। এটি কেবল নতুন বাধাই সৃষ্টি করেনি, একসঙ্গে ব্যবসা করতে চায় এমন চীনা ও আমেরিকান কোম্পানিগুলোর ওপর ভারী সম্মতির বোঝা চাপিয়েছে। পাশাপাশি, বিশ্বব্যাপী সেমিকন্ডাক্টর শিল্পের জন্য বিশাল অনিশ্চয়তা সৃষ্টি করেছে।” – এক বিবৃতি অনুসারে বলেছেন চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র।

“মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপ চীনা ও বিদেশী কোম্পানির মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতাকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করার পাশাপাশি বৈধ অধিকার ও স্বার্থের ক্ষতি করে। চীন দৃঢ়ভাবে এর বিরোধিতা করে।” – একজন সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে বলেন ওই মুখপাত্র।

“পারস্পরিক উপকারী সহযোগিতা জোরদার করতে এবং বৈশ্বিক সেমিকন্ডাক্টর শিল্প এবং সরবরাহ চেইনের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা উন্নীত করতে সব পক্ষের সঙ্গে চীন কাজ করতে প্রস্তুত।”

১৬৬ পৃষ্ঠা দৈর্ঘ্যের নতুন নিয়মগুলো বৃহস্পতিবার কার্যকর হয়েছে। সেখানে স্পষ্ট করা আছে, কোনো ল্যাপটপে উন্নত চিপ থাকলে সেটিও এ নিয়ন্ত্রণের আওতায় পড়বে বলে প্রতিবেদনে লিখেছে রয়টার্স।