ফেভারিট তকমার ‘ফাঁদে’ পা দিতে চান না মেসি

বিশ্বকাপে তাদের ঘিরে ওঠা ‘হাইপ’ গায়ে মাখছেন না আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Nov 2022, 02:11 PM
Updated : 15 Nov 2022, 02:11 PM

কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে ঘিরে প্রত্যাশা অনেক বেশি। সমর্থকদের চাওয়া আকাশচুম্বী। তিন বছরের বেশি সময় ধরে অপরাজিত থাকা দলটিকে ফেভারিটের তালিকায় ওপরের দিকে রাখা লোকের অভাব নেই। তবে এমন ‘হাইপ’ গায়ে মাখছেন না লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনা অধিনায়ক দলকে দূরে রাখতে চান এই সব কিছু থেকে। 

গত বছর কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিলকে তাদের মাঠেই হারিয়ে ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটায় আর্জেন্টিনা। পরে তারা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে হারিয়ে জিতে নেয় আরেকটি ট্রফি।

সবশেষ ১৯৮৬ সালে বিশ্বকাপ জেতা দলটি এবার বাছাইপর্বে অপরাজিত থেকে পেয়েছে কাতারের টিকেট। সব মিলিয়ে লিওনেল স্কালোনির দল অপরাজিত আছে ৩৫ ম্যাচ ধরে। সবশেষ তারা হেরেছে ২০১৯ সালের জুলাইয়ে, কোপা আমেরিকার সেমি-ফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে।

আর্জেন্টিনার বর্তমান দলের খেলোয়াড়রা অনেক দিন ধরে খেলছে একসঙ্গে। তাই বিশ্বকাপে তাদের ফেভারিট হিসেবেই দেখা হচ্ছে। তবে মেসি সতর্ক। সম্প্রতি টিভি অনুষ্ঠান ‘ইউনিভার্সো ভালদানো’-তে ফুটবলের এই মহাতারকা বলেন, তারা এগোতে চান একেকটি ম্যাচ ধরে।

“এখন সব দলের বিপক্ষে খেলাই কঠিন। (বিশ্বকাপে) সব দলকে হারানোই কঠিন হবে। (অপরাজিত থাকার পথে) ইউরোপিয়ান দলগুলোর বিপক্ষে আমরা খুব বেশি ম্যাচ খেলিনি। অবশ্য তারাও আমাদের বিপক্ষে খেলতে পছন্দ করে না। দক্ষিণ আমেরিকার দলগুলোর বিপক্ষে খেলাও কঠিন।”

“আমরা ভালো ফর্ম নিয়ে বিশ্বকাপে খেলব। কিন্তু আমরা এই হাইপের ফাঁদে পা দিয়ে বিশ্বাস করতে পারি না যে, আমরা ফেভারিট এবং আমরা (বিশ্বকাপ) জিতব। আমাদের বাস্তববাদী হতে হবে এবং ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে হবে।”

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও ব্রাজিলকেও এবার ফেভারিট হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এই দুই দল অন্যদের জন্য বড় হুমকি হতে উঠতে পারে বলে মনে করেন মেসি।

“ফ্রান্স ভালো দল। তাদের কিছু খেলোয়াড় ইনজুরিতে পড়েছে, কিন্তু তাদের দলে অনেক সম্ভাবনাময় খেলোয়াড় আছে। তাদের দলে সেরা খেলোয়াড়রা আছে এবং এমন একজন কোচ (দিদিয়ে দেশম)  আছেন, যিনি দীর্ঘদিন ধরে প্রায় একই দলের সঙ্গে কাজ করছেন, গত বিশ্বকাপও জিতেছেন।”

“ব্রাজিলেরও অনেক মানসম্পন্ন খেলোয়াড় আছে, বিশেষ করে আক্রমণভাগে। তাদের ভালো নাম্বার নাইন আছে, নেইমার আছে।”

চোটের কারণে মাঝমাঠের নির্ভরযোগ্য সেনানী জিওভানি লো সেলসোকে বিশ্বকাপে পাচ্ছে না আর্জেন্টিনা। তাকে না পাওয়াকে দুর্ভাগ্যজনক হিসেবে দেখছেন মেসি। আপাতত তাদের সব মনোযোগ ২২ নভেম্বর সৌদি আরবের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের দিকে। 

“আমাদের ভালো একটি দল আছে এবং খেলোয়াড়রাও ভালো ফর্মে আছে। জিওর (লো সেলসো) চোট আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যজনক, কারণ সে আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, কিন্তু অন্যরা এসেছে। আমরা (শিরোপার জন্য) লড়াই করব। এটাই লক্ষ্য। তবে প্রথমে আমাদেরকে প্রথম ম্যাচ জেতার দিকে মনোযোগ দিতে হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক