কাতারেও টিকেট কালোবাজারি!

বিশ্বকাপের দামামার মধ্যে টিকেটের বিপুল চাহিদার সুযোগ নিচ্ছেন কেউ কেউ।

মোহাম্মদ জুবায়েরমোহাম্মদ জুবায়ের দোহা থেকেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Dec 2022, 06:06 AM
Updated : 1 Dec 2022, 06:06 AM

আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ড ম্যাচ তখন শুরুর অপেক্ষা। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ এসেছেন হোর্হে রোসো, কিন্তু টিকেট পাননি। স্টেডিয়ামের প্রাচীরে হেলান দিয়ে বসে আছেন তার স্ত্রী, কিন্তু ছোট্ট ছেলেটি নাছোড়বান্দা। যেকোনো মূল্যে তার টিকেট চাই।

ওদিক-ওদিক হন্যে হয়ে ঘুরে টিকেট না পেয়ে নিয়ে বিষণ্ন মুখে দাঁড়িয়ে আছেন রোসো। ছেলের বায়না পূরণের পথ কোনোভাবেই খুঁজে পেলেন না আর্জেন্টাইন ওই সমর্থক। ছবি তুলতে চাই জানাতে তিনি হাসিমুখে পোজ দিলেন বটে, কিন্তু ছেলেটা থাকল মুখ গোমড়া করে। প্রিয় তারকা লিওনেল মেসির জার্সি পরে এসেছে ছেলেটি।

এ মাঠে আসন সংখ্যাই মাত্র ৪৪ হাজার। আর্জেন্টিনার ম্যাচ থাকলে স্টেডিয়ামে সমর্থকদের যে স্রোত দেখা গেছে স্টেডিয়ামগুলোতে, তাতে এই পরিমাণ টিকেট যৎসামান্যই বলতে হবে। এর মধ্যেও আবার চলছে কালোবাজারি!

স্টেডিয়ামের বাইরের আঙিনায় পুলিশের ছড়াছড়ি, বিশ্বকাপ উপভোগ করতে আসা দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার জন্য। এর মধ্যেই আড়ালে-আবডালে চলছে টিকেট কেনা-বেচা। দু-তিন জনকে পুলিশ আটকও করল।

দোহায় মূলত লাতিন আমেরিকার দুই দল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের সমর্থকদের ভিড়। কেবল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল থেকে আসা সমর্থক নয়, মধ্যপ্রাচ্যে এই দুটি দলের সমর্থকও বেশ চোখে পড়ার মতো। এর মধ্যে আছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তানের সমর্থকরাও।

সৌদি আরব ও আর্জেন্টিনার ম্যাচে এমন দৃশ্যের দেখাও মিলেছে, একই সমর্থকের গায়ে আর্জেন্টিনার জার্সি, হাতে সৌদি আরবের পতাকা! আজমাইন নামের ওই সমর্থক জানালেন সৌদি বাড়ি তার। কাতারিদের মধ্যেও অনেকের দেখা মিলেছে ব্রাজিল কিংবা আর্জেন্টিনার পতাকা এক হাতে, অন্য হাতে নিজেদেরটা।

মেসি ও নেইমারদের ম্যাচের আগে ‘টিকেট নিডেড’ লেখা ছোট ছোট প্ল্যাকার্ড নিয়ে ঘুরতে দেখা গেছে স্টেডিয়ামের বাইরে, মেট্রোতেও। যারা বিক্রি করে মোটা অঙ্ক বাগিয়ে নিতে চান, তাদের সঙ্গে টিকেট প্রত্যাশীদের আড়ালে গিয়ে আলাপ সারতেও দেখা গেছে। পুলিশ এলেই চুপিসারে সটকে পড়েন তারা। ক্রেত-বিক্রেতা কেউ তখন কাউকে চেনেন না!

পুলিশ এসে ধরে নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ড ম্যাচেই প্রথম দেখা। তবে বেশ কয়েকটি বিশ্বকাপ কাভার করা সাংবাদিকদের কাছ থেকে জানা গেল টিকেট কালোবাজারি নতুন কিছু নয়। ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপ কাভার করতে গিয়ে এমন দৃশ্য দেখেছেন তারা।

কিন্তু তাই বলে কাতারে? প্রশ্নটা এজন্য যে, মধ্যপ্রাচ্যে এই ধরনের কাজে ফল যে বড্ড ভয়ানক।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক