অপহরণের পর হত্যা: নাটোরে একজনের যাবজ্জীবন

যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত আসামিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করেছেন বিচারক।

নাটোর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Jan 2024, 12:21 PM
Updated : 17 Jan 2024, 12:21 PM

নাটোরের নলডাঙ্গায় এক শিশুকে অপহরণ করে হত্যার দায়ে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। 

বুধবার নাটোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুহাম্মদ আব্দুর রহিম ১১ বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন বলে আদালদের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. আনিসুর রহমান জানান। 

এছাড়া রায়ে তিনি আরও দুইজনকে তিন বছরের আটকাদেশ দিয়েছেন। 

যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত মো. রানা নলডাঙ্গা উপজেলার গাংগইল ধোপাপাড়া এলাকার রেজাউল ইসলামের ছেলে। তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করেছেন বিচারক। 

আটকদের মধ্যে একজন হলেন ধনকোড়া এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে টিপু সুলতান (২০)। আরেকজন কিশোর। তার বয়স ১৭ বছর। 

মামলার বরাতে আনিসুর বলেন, ২০১২ সালের ১৩ নভেম্বর বিকালে উপজেলার ব্রহ্মপুর এলাকা থেকে অনিক নামের সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্র নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে না পেয়ে নলডাঙ্গা থানায় রানা ও টিপুর নাম উল্লেখ করে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন অনিকের দাদা জফির উদ্দিন। 

পরদিন অনিকের মোবাইল থেকে তার মায়ের কাছে ফোন করে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন অপহরণকারীরা। পরে ঘটনাটি থানায় জানানো হলে টিপুকে আটক করে পুলিশ। তার দেওয়া তথ্যে বাকি দুইজনকে আটক করা হয়। 

পরে তাদের আদালতে তোলা হলে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। অনিক শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকারও করেন। 

রাষ্ট্রপক্ষের ওই আইনজীবী জানান, রায়ে টিপুকে ২০১ ধারায় তিন বছর ও আরেকজনকে ৮, ১০ ও ২০১ ধারায় তিন বছরের আটকাদেশ দেওয়া হয়েছে। আর আসামির জরিমানার টাকা অনিকের পরিবার পাবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।