ফেনীতে ভারতীয় কাপড়সহ গ্রেপ্তার চার, কভার্ডভ্যান জব্দ

ফেনী পলিটেনিক ইনিস্টিটিউটের সামনে চেক একটি কভার্ডভ্যানে তল্লাশি চালিয়ে বিভিন্ন ব্রান্ডের ৫১৫টি ভারতীয় শাড়ি এবং ২৭০টি লেহেঙ্গা পাওয়া যায়।

নাজমুল হক শামীম, ফেনী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 August 2022, 04:33 PM
Updated : 8 August 2022, 04:33 PM

ফেনীতে একটি কভার্ডভ্যান থেকে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি ও লেহেঙ্গাসহ চার ব্যক্তি গ্রেপ্তার হয়েছেন; যাদের চোরাকারবারি বলছে পুলিশ। এ সময় কভার্ডভ্যানটি জব্দ করা হয়।

রোববার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক শাহ মো. ফয়সাল আহম্মেদ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার পূর্ব মধুগ্রাম এলাকার শরিয়ত উল্ল্যাহর ছেলে মো. আনোয়ার হোসেন অভি (৩৫), অজিউল হক চৌধুরীর ছেলে মো. নুরুল আলম ওরফে তুষার চৌধুরী (২৮), আবুল বশরের ছেলে শাহাদাৎ হোসেন (১৮) ও দক্ষিণ আধার মানিক গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে আব্দুল হালিম (২৮)।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক শাহ মো. ফয়সাল আহম্মেদ জানান, চোরাচালানের গোপন সংবাদে রোববার ফেনী পলিটেনিক ইনিস্টিটিউটের সামনে চেকপোস্ট বসানো হয়।

“এ সময় ছাগলনাইয়া থেকে ফেনীর দিকে আসা একটি কভার্ডভ্যান থামিয়ে তল্লাশি চালায় পুলিশ। সেখানে অবৈধভাবে আনা বিভিন্ন ব্রান্ডের ৫১৫টি ভারতীয় শাড়ি এবং ২৭০টি লেহেঙ্গা পাওয়া যায়।”

পরে পুলিশ শাড়ি-লেহেঙ্গা ও কভার্ডভ্যানটিসহ চার চোরকারবারিকে গ্রেপ্তার করে বলে ফয়সাল জানান।

ফয়সাল আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা জানান – এই চোরাচালানের সঙ্গে চট্টগ্রাম জেলার মো. জাহাঙ্গীর আলম (৪০) ও মুন্না (৩৫) নামে আরও দুইজন জড়িত। তাদের সহযোগিতায় ভারত থেকে চোরাই পথে শাড়ি-লেহেঙ্গাগুলো চট্টগ্রাম হয়ে ফেনীতে আনা হচ্ছিল।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর আসামিদের ফেনী মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক