কুমিল্লায় ইউপি সদস্যের কাছে চাঁদা দাবি, এসআই বরখাস্ত

ঘটনার দিন রাতে চাঁদাবাজির অভিযোগে ওই ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

কুমিল্লা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 April 2024, 05:15 PM
Updated : 1 April 2024, 05:15 PM

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার এক ইউপি সদস্যের কাছে ‘দুই লাখ টাকা চাঁদা‘ দাবির অডিও প্রকাশের পর এক এসআইকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। 

কুমিল্লা পুলিশ সুপার মো. আব্দুল মান্নান মুরাদনগর থানার এসআই হারুনুর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন বলে সোমবার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন মুরাদনগর থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এসআই হারুনুর রশিদ তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন থেকে নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আশরাফুল ইসলামের কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন; যা রেকর্ড করা হয়।

চাঁদা দাবির একপর্যায়ে ইউপি সদস্য আশরাফুল এসআইকে বলেন, “দুই লাখ টাকা এই মুহূর্তে হাতে নেই”। তবে কি সমস্যা জানতে চান তিনি। উত্তরে এসআই হারুন বলেন, “এ ব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারব না। সব স্যারে (ওসি) জানে।”

আশরাফুল কয়েক দিনের সময় চাইলে এসআই সরি বলে ফোন কেটে দেন। সেদিন রাতেই চাঁদাবাজির অভিযোগে আশরাফুলকে তার শ্বশুর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 

চাঁদা দাবির অডিও রেকর্ডটি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ পেলে সমালোচনা সৃষ্টি হয়। পরে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মুরাদনগর-সার্কেল) রবিউল ইসলাম বিষয়টি তদন্ত করে চাঁদা দাবির সত্যতা পেলে পুলিশ সুপারকে প্রতিবেদন পাঠান। 

প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ৩০ মার্চ পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান এসআই হারুনুর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করে জেলা পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করেন। সোমবার বিষয়টি জানাজানি হয়। 

এ বিষয়ে ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, “এসআই হারুনুর রশিদের চাঁদা দাবির বিষয়ে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। তিনি আমার নাম ব্যবহার করে এমনটা করেছেন। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দেখছেন।”