অ্যাসিড ছুড়ে পোশাককর্মীকে হত্যায় সাবেক স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

২০২২ সালের ২৯ জানুয়ারি রাতে ঘুমন্ত সাথী আক্তারকে অ্যাসিড নিক্ষেপ করেন নাঈম।

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2024, 09:29 AM
Updated : 1 Feb 2024, 09:29 AM

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় এক নারী পোশাককর্মীকে অ্যাসিড নিক্ষেপ করে হত্যার মামলায় তার সাবেক স্বামীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে মানিকগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জয়শ্রী সমদ্দার আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি মথুর নাথ সরকার জানান। 

দণ্ডপ্রাপ্ত মো. নাঈম মল্লিক (৩১) সদর উপজেলার বেতিলা এলাকার মৃত নিজাম মল্লিকের ছেলে। 

হত্যার শিকার নারী মোসা. সাথী আক্তার (২০) সাটুরিয়া উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নের কাটাখালী ফেরাজীপাড়ার আব্দুস সাত্তারের মেয়ে। 

পারিবারিক কলহ ও যৌতুকের দাবিতে শারীরিক নির্যাতনের কারণে ২০২১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর স্বামী নাঈম মল্লিককে তালাক দেন সাথী। এরপর তিনি সাটুরিয়ায় বাবার বাড়িতে থেকে ধামরাই উপজেলার একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

মামলার নথির সূত্রে অতিরিক্ত পিপি মথুর নাথ জানান, ২০২২ সালের ২৯ জানুয়ারি রাতে ঘুমন্ত সাথী আক্তারকে অ্যাসিড নিক্ষেপ করেন নাঈম। এতে সাথীর হাতমুখ ও শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। 

ওইদিন রাতেই গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হলে ১২ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর সাথীর মৃত্যু হয়। 

পরে এ ঘটনায় নিহতের মামা লাল মিয়া বাদী হয়ে ২০২২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি সাটুরিয়ায় থানায় নাঈম মল্লিককে আসামি করে মামলা করলে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 

ওই বছরের ১২ এপ্রিল মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম নাঈম মল্লিকের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। 

পরে আদালতের বিচারক উভয়পক্ষের সাক্ষ্য গ্রহণ ও যুক্তিতর্ক শেষে বৃহস্পতিবার তাকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন। একইসঙ্গে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডও প্রদান করেন। 

এই রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি মথুর নাথ সরকার সন্তোষ প্রকাশ করলেও আসামি পক্ষের আইনজীবী মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছেন।