গদখালীতে ফুল উৎসব, নানা রঙের মেলা

দর্শনার্থীদের যাতায়াতের জন্য যাত্রীবাহী ভ্যান, অটোরিকশাগুলোও ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে। 

বেনাপোল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Jan 2023, 09:01 AM
Updated : 20 Jan 2023, 09:01 AM

ফুলের রাজধানী খ্যাত যশোরের গদখালীতে ফুলের বাণিজ্যিক সম্প্রসারণের লক্ষ্যে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে তিন দিনের ‘ফুল উৎসব’।  

বৃহস্পতিবার বিকেলে গদখালীর পানিসারা মোড়ে ঝিকরগাছা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় এই ফুল উৎসব শুরু হয়। 

অনুষ্ঠানের প্রথম দিন ফুল উৎসবের উদ্বোধন করেন যশোর জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান। পরে অতিথিরা মেলা প্রাঙ্গনের প্রদর্শনী স্টলগুলো ঘুরে দেখেন। 

আয়োজকরা বলছেন, যশোর জেলায় ফুলের রাজধানীখ্যাত ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালী অঞ্চল। মূলত উপজেলার গদখালী, পানিসারা ও নাভারণ ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে হরেক রকমের ফুল চাষ হয়। বৈচিত্র্যময় এ ফুলের রাজ্যকে সবার সামনে তুলে ধরতে প্রথমবারের মতো ঝিকরগাছার পানিসারায় আয়োজিত হয়েছে ফুল উৎসব। 

ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মঞ্জরুল হক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রফিকুল হাসান, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম ও বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার্স এ‍্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুর রহিম। 

ফুল উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফুল চাষে বিশেষ অবদান রাখায় ফুল চাষী শাহাজান আলি, মুনজুর আলম, ইসমাইল হোসেন, জাবেদুর রহমান, আবুল হোসেন, আব্দুর রহিমকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।  

মেলায় ২০ টি নার্সারি, তিনটি পর্যটন প্যাভিলিয়ন ও ১০টি স্টল সেজেছে উৎসবের সাঁজে। গদখালী বাজার থেকে মেলা প্রান্তে দর্শনার্থীদের যাতায়াতের জন্য যাত্রীবাহী ভ্যান, অটোরিকশাগুলোও ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে।  

যশোর ফুল উৎপাদক ও বিপনন সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি আব্দুর রহিম বলেন, এই উৎসব ফুলের রাজধানীকে প্রসার, প্রচার ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির পথে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রতিবছর এই আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহবুবুল হক বলেন, “আশা করি, এই উৎসবের মাধ্যমে ঝিকরগাছা উপজেলার ফুলের রাজ্য হিসাবে গদখালীর সুখ্যাতি আরো আড়ম্বরপূর্ণ হয়ে উঠবে।” 

যশোর জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান বলেন, “প্রথমবারের মতো ঝিকরগাছার গদখালীতে এই ফুলের উৎসব হচ্ছে। এই উৎসবে সবাইকে আমি আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক