শেরপুরে পাহাড়ে ‘বন্যহাতির আক্রমণে’ কৃষকের মৃত্যু

পুলিশের ধারণা, পাহাড়ে গহীন অরণ্যে গরু খুঁজতে গেলে বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে মারা যান নুরুল।

শেরপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Jan 2024, 10:02 AM
Updated : 30 Jan 2024, 10:02 AM

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার সীমান্তে গারো পাহাড়ে ‘বন্যহাতির আক্রমণে’ এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে পুলিশ ধারণা করছে।

সোমবার রাতে উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের তাওয়াকুচা সেগুন চালি পাহাড়ি এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে ঝিনাইগাতী থানার ওসি বছির আহমেদ বাদল।

নিহত নুরুল ইসলাম (৬৫) উপজেলার গুরুচরণ দুধনই গ্রামের মৃত সাহার উদ্দিনের ছেলে।

পরিবার ও স্থানীয়দের বরাতে ওসি বছির আহমেদ বলেন, “কৃষক নুরুল প্রতিদিনের মত সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার কয়েকটা গরু নিয়ে গারো পাহাড়ের তাওয়াকোচায় এলাকায় ছেড়ে দেন।

“এরপর বিকেল ৫টার দিকে গরু আনতে আবার পাহাড়ে যান তিনি। কিন্তু পরে আর বাড়িতে ফিরেননি নুরুল।”

তিনি বলেন, রাত ৮টার দিকে নুরুল ইসলামের আত্মীয়-স্বজন এবং প্রতিবেশীরা পাহাড়ে যান। পাহাড়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে নুরুল ইসলামে মুখ থেতলানো লাশ উদ্ধার করা হয়।

নুরুল পাহাড়ে গহীন অরণ্যে গরু খুঁজতে গেলে বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে মারা গেছেন বলে ধারণা ওসির।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত না করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর এবং থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা (ইডি) হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, “আমি শুনেছি হাতির আক্রমণে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।”