শৈলকুপায় সাবেক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থকের মধ্যে সংঘর্ষ

এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ১০ আহত হয়েছেন।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Jan 2024, 12:54 PM
Updated : 31 Jan 2024, 12:54 PM

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার বগুড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। এ সময় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার সকালে উপজেলার ওই ইউনিয়নের রত্নাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানান শৈলকুপা থানার ওসি সৈয়দ শফিকুল চৌধুরি জানান।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাস প্রতীকের পক্ষে নির্বাচন করেন।

অপরদিকে বর্তমান ইউপি চেয়োরম্যান মো. শফিকুল ইসলাম শিমুল নৌকার প্রতীকের পক্ষে নির্বাচন করেন। নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী জয়লাভ করেন।

এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, নির্বাচনের পর তার সমর্থকদের উপর বর্তমান চেয়ারম্যান শিমুলের লোকজন নানা ভাবে নির্যাতন করে আসছে। রত্নাট, বগুড়া, বারইহুদা ও আলফাপুর গ্রামের শিমুলের সমর্থকরা মানুষজনকে মাঠে চাষাবাদ করতে বাঁধা দেয়।

“বুধবার সকালে আমার পক্ষের লোকজন রত্নাট গ্রামের প্রতিপক্ষের কয়েকজনকে ধাওয়া দেয়। এ ঘটনায় পাশের আলফপুর, বগুড়া ও বারইহুদা গ্রামে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে।”

তিনি বলেন, “সংঘর্ষে আমার তার পক্ষের দুজন আহত হয়েছেন। তাদের শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে।”

অভিযোগ অস্বীকার করে বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শিমুল বলেন, “নির্বাচনের পর থেকে আমার সমর্থকদের উপর প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা করে আহত করেছে। থানাতে মামলাও হয়েছে।

“বুধবার সকালে রত্নাট গ্রামে আমার সমর্থকদের উপর প্রতিপক্ষরা হামলা করে। এরপর  দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ লেগে যায়।”

সংঘর্ষে তার ছয়জন সমর্থক আহত হলে তাদের ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে জানান তিনি।

ওসি সৈয়দ শফিকুল চৌধুরি বলেন, বগুড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে কয়েকজন আহত হয়েছেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। উত্তেজনা থাকায় ওই ইউনিয়নে পুলিশ মোতায়েন করা হয়ে বলে জানান তিনি।