কুমিল্লায় ভিক্টোরিয়ার শিক্ষার্থীদের ওপর শ্রমিকদের হামলা, আহত ২০

রাস্তা পারাপারের সময় বাসের ধাক্কায় এক শিক্ষার্থী আহতের ঘটনার প্রতিবাদকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনা ঘটে।

কুমিল্লা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Dec 2023, 06:43 PM
Updated : 4 Dec 2023, 06:43 PM

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে পরিবহন শ্রমিকদের বিরুদ্ধে। এতে অন্তত ২০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর শাসনগাছা বাস টার্মিনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের উপাধক্ষ্য মৃণাল কান্তি গোস্বামী।

আহতদের মধ্যে ১৫ জনকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে ভর্তি করার কথা জানিয়েছেন চিকিৎসক। বাকিরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন নাছিমা আক্তার বলেন, গুরুতর আহতদের মধ্যে ভিক্টোরিয়া কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শাকিল, রসায়ন তৃতীয় বর্ষের হাসান ও আরাফাত, বাংলা চতুর্থ বর্ষের হাবিব, অর্থনীতি প্রথম বর্ষের ইমরান হোসেন, ইসলামের ইতিহাস তৃতীয় বর্ষের আবদুল কাহহার, গণিত চতুর্থ বর্ষের রতন, রাষ্টবিজ্ঞান চতুর্থ বর্ষের জামশেদ আলম, ব্যবস্থাপনা দ্বিতীয় বর্ষের আরমান হোসেন, অর্থনীতি চতুর্থ বর্ষের নিলয়, রাষ্টবিজ্ঞান দ্বিতীয় বর্ষের সাকিব হোসেন ও রাষ্টবিজ্ঞান বিভাগের সানি রয়েছেন।

আহত আবদুল কাহহার জানান, বিকালে রাস্তা পারাপারের সময় তাকে একতা পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দেয়। এতে তিনি আহত হন। পরে চালককে সাবধানে গাড়ি চালাতে বলেন। এ নিয়ে তার সঙ্গে থাকা অপর এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে বাসচালক ও তার সহকারী তর্কে জড়ান।

পরে ওই দুই শিক্ষার্থীকে বাসস্ট্যান্ডে আটকে রাখেন চালক ও তার সহকারী (হেলপার)। খবর পেয়ে বেশ কয়েকজন সহপাঠী তাদের উদ্ধার করতে যান।

শিক্ষার্থীদের আসার খবর পেয়ে পরিবহন শ্রমিকরা দেশি অস্ত্র ও ইট-পাটকেল নিয়ে সড়কে অবস্থা নেয়। আটকে রাখা সহপাঠীদের আনতে গেলে শিক্ষার্থীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় শ্রমিকরা।

এ সময় শ্রমিকদের সঙ্গে স্থানীয় একটি পক্ষ যুক্ত হয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া অন্তত ২০ শিক্ষার্থীকে মারপিট করেন তারা।

আহত আরেক শিক্ষার্থী রতন বলেন, “তারা টার্গেট করে হামলা করেছে। আমাদের সঙ্গে থাকা টাকা-পয়সা এবং সহপাঠীদের মোবাইল ফোন নিয়ে গেছে। আমরা রাস্তায় পড়ে ছিলাম। স্থানীয়রা আমাদের হাসপাতালে নিয়ে এসেছে।”

সিভিল সার্জল নাছিমা আক্তার বলেন, সদর হাসপাতালে কয়েকজনকে ভর্তি করা হয়েছে; বাকিরা চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন।

হামলার বিষয়ে একতা বাস সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল হোসেন বলেন, “কলেজ শিক্ষার্থীদের হামলায় আমার বাসচালক গুরুতর অসুস্থ হয়েছেন। তাকে অন্য একটি মেডিকেলে ভর্তি করিয়েছি। এ ঘটনার জন্য তারাই দায়ী।”

উপাধক্ষ্য মৃণাল কান্তি বলেন, “১৫ ছাত্রের অবস্থা আশঙ্কাজনক। একজনের মাথায় ১২টি সেলাই লেগেছে। কারো হাত, কারো পা ভেঙেছে। ছেলেরা রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছে।”

অধ্যক্ষ অসুস্থ থাকায় মঙ্গলবার তার সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর-সার্কেল) কামরান হোসেন বলেন, “শাসনগাছায় একটি ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। তবে কোনো অভিযোগ পাইনি। পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”