রাজবাড়িতে তিন চাকা বন্ধের দাবিতে বাস ধর্মঘট: ভরসা সেই অটোরিকশাই

শুক্রবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মঘট শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে।

রাজবাড়ী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Nov 2022, 06:57 AM
Updated : 11 Nov 2022, 06:57 AM

বিএনপির সমাবেশের আগে রাজবাড়ীতে বাস ধর্মঘট শুরু হয়েছে। সারাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ৷

জেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণত সম্পাদক মুরাদ হাসান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মহাসড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচলের কারণে নানা দুর্ঘটনা ঘটছে। এসব অবৈধ যানবাহন বন্ধের জন্য এই ধর্মঘট ডাকা হয়েছে।

তিন চাকার অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে এ ধর্মঘট ডাকা হলেও শুক্রবার সকালে রাজবাড়ীর মহাসড়ক গুলোতে মাহেন্দ্র ও ব‍্যাটারি চালিত অটোরিশার দাপিয়ে বেড়াতে দেখা গেছে।

শুক্রবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মঘট শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে বলে জেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মুরাদ হাসান জানিয়েছেন।

শহরের অস্থায়ী বাসস্ট্যান্ড মুরগির ফার্ম এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ধর্মঘটের কারণে আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লার কোনো বাস রাজবাড়ী থেকে ছেড়ে যায়নি। বাস বন্ধ থাকার কারণে যাত্রীদের বেশি ভাড়া বেশি দিয়ে তিন চাকার যানবাহনে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

পাংশা থেকে ফরিদপুরগামী রহমত আলী বলেন, “চরম ভোগান্তিতে আছি। আমার উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা আছে ফরিদপুরে। ব্যাটারি চালিত মাহেন্দ্র করে এ পর্যন্ত এলাম; এখন ফরিদপুরে যাওয়ার বাস পাচ্ছি না। যাও দু- একটা অটোরিকশা পাওয়া যায়, ভাড়া চাচ্ছে দ্বিগুণ।

জরুরি কাজে মো. রমজান আলীকে ঢাকাতে যেতে হবে। তাই অটোরিকশায় রাজবাড়ী পর্যন্ত এলেও বাস বন্ধ থাকায় বাকি রাস্তা পেরোনো নিয়ে ভাবনায় পড়েছেন।

তিনি বলেন, “এখন ভাবছি কি করবো? ঢাকা যাবো না কি বাড়িতে ফিরে যাবো?

যাত্রীদের অভিযোগ, মুরগির ফার্ম বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে গোয়ালন্দ পর্যন্ত এমনি সময়ে যেতে লাগে ২৫ টাকা। ধর্মঘটের কারণে এ দূরত্ব যেতে অটোরিকশায় ৫০ টাকা ও ব্যটারি চালিত রিকশা ভ্যানে ৭৫ টাকা গুণতে হচ্ছে।

তানিয়া খাতুন নামের আরেক যাত্রী বলেন, “বাস নাই তাই গোয়ালন্দ মোড়ে যেতে একটা রিকশা ভাড়া করলাম। রাজবাড়ীর মুরগির ফার্ম থেকে গোয়ালন্দ মোড় বাসে ভাড়া পঁচিশ টাকা। বাস বন্ধ থাকায় আমার এখন গুণতে হচ্ছে ৭৫ টাকা।”

আব্দুল হালিমের পরিচিত একজন ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি। শুক্রবার ভোর ৬টায় তিনি রাজবাড়ীর মুরগি ফার্মে ঢাকার বাস ধরার জন্য এসে ধর্মঘটের খবর পান।

একইভাবে বাস না পেয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন ওসমান গণি। তিনি বলেন, “আমি গোপালগঞ্জ থেকে রাজবাড়ীতে এসেছি একটা কাজে। শুনছি ফরিদপুর বিএনপির সমাবেশ রয়েছে যে কারণে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। এতে তো সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়ছে।”

রাজবাড়ী জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক রেজাউল করিম পিন্টু বলেন, “গণতান্ত্রিক এই দেশে সভা সমাবেশ করার অধিকার সবার আছে। বিএনপির গণসমাবেশ বাধাগ্রস্ত করার জন‍্য বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে এই সরকার। বিএনপির নেতাকর্মীরা রিকশা ভ‍্যান, অটোরিকশা বাইসাইকেল ও হেঁটে সমাবেশস্থলে পৌঁছনোর চেষ্টা করছে। বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও সমাবেশ আটকাতে পারবে না “

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক