মিয়ানমার থেকে উড়ে এসে বান্দরবান সীমান্তে পড়ল দুটি মর্টার শেল

জিরো লাইন থেকে বাংলাদেশের আধা কিলোমিটার অভ্যন্তরে এসে পড়ে শেল দুটি।

বান্দরবান প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 August 2022, 12:27 PM
Updated : 28 August 2022, 12:27 PM

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্তে মিয়ানমার দিক থেকে দুটি মর্টার শেল এসে পড়েছে।

রোববার বেলা আড়াইটার দিকে তুমব্রু সীমান্তে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর সীমান্ত পিলার এলাকায় শেল দুটি পড়ার কথা জানান বান্দরবানের পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম।

বিজিবিও ঘটনাটি জেনে এই শেলের উৎস নিয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছে বলে বাহিনীর ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

মর্টার শেলে পড়ে কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হলেও এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান।

পুলিশ সুপার তারিকুল বলেন, মিয়ানমারের দুটি মর্টার শেল জিরো লাইন থেকে আধ কিলোমিটার বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঘুমধুম ইউনিয়নের দুই নম্বর ওর্য়াডের তুমব্রু সীমান্তে এসে পড়ে। এর মধ্যে একটি উত্তরপাড়া জামে মসজিদের পাশে, অপরটি ওই মসজিদ থেকে ২০০ গজ দূরে এসে পড়ে।

এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি বলে জানান পুলিশ সুপার। তিনি বলেন, সীমান্তে বিজিবি সদস্যরা সতর্কবস্থায় রয়েছে।

ঢাকায় বিজিবির পরিচালক (অপারেশন্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বিষয়টি আমরা শুনেছি, এ ব্যাপার আমাদের বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহের কার্যক্রম চলমান আছে।”

পুলিশ সুপার তারিকুল বলেন, “মনে হচ্ছে, মর্টার শেলগুলো আমাদের দিকে টার্গেট করে ছোড়া হয়নি। এটি খুব সম্ভব মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিজিপি) সঙ্গে কোনো বিদ্রোহী গোষ্ঠীর গোলাগুলির কারণে আমাদের সীমান্তে এসে পড়েছে।”

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, দুই সপ্তাহ ধরে মিয়ানমার অভ্যন্তরে সীমান্তে গোলাগুলির শব্দ শুনতে পাচ্ছেন তারা।

তিনি বলেন, “মর্টার শেলগুলোয় কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হলেও স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক