কমিটি প্রত্যাখ্যান: কিশোরগঞ্জে নেতার ‘দুগ্ধস্নানের’ পর ছাত্রলীগের ঝাড়ু মিছিল

সকালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পাকুন্দিয়া-মঠখলা সড়কের থানা মোড়ে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Oct 2022, 02:15 PM
Updated : 8 Oct 2022, 02:15 PM

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটি প্রত্যাখান করে সংগঠনের একাংশের নেতাকর্মীরা সড়ক অবরোধ ও ঝাড়ু মিছিল করে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। 

কাঙ্ক্ষিত পদ না পেয়ে এক নেতার দুধ দিয়ে গোসল করে ‘ছাত্ররাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার’ ঘোষণার একদিন বাদে শনিবার সকালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পাকুন্দিয়া-মঠখলা সড়কের থানা মোড়ে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।

এ সময় কিশোরগঞ্জ-ঢাকা পথে চলাচলকারী বাসসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আধা ঘণ্টার পর পুলিশে এসে বিক্ষোভকারীদের সড়ক থেকে তুলে দিলে ফের যানচালাচল স্বাভাবিক হয়।

পরে দুপুর ১টায় পাকুন্দিয়ার বঙ্গবন্ধু চত্বরে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে নেতারা অবিলম্বে ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবি জানান।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বরাতে জানা যায়, দীর্ঘ ১২ বছর পর বুধবার পাকুন্দিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত এই কমিটি নিয়ে ফেসবুকে পক্ষে-বিপক্ষে কাঁদা ছোড়াছুঁড়ি চলছে।

নাজমুল আলমকে সভাপতি ও মো. তোফায়েল আহমেদকে সাধারণ সম্পাদক করে ঘোষিত ১৯ সদস্যের আংশিক কমিটিতে ১ নম্বর সিনিয়র সহসভাপতি করা হয় মো. আরমিন আহমেদকে।

বৃহস্পতিবার রাতে কমিটিতে কাঙ্ক্ষিত পদ না পেয়ে দুধ দিয়ে গোসল করে ‘ছাত্ররাজনীতির ইতি টানার’ ঘোষণা দেন পাকুন্দিয়া ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আরমিন। নিজের ফেইসবুকে পোস্ট করা ভিডিওটি দ্রুত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সকাল ১০টায় পাকুন্দিয়া ঈদগাহের সামনে থেকে ঝাড়ু মিছিল বের করে। মিছিলটি পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা টায়ার জ্বালিয়ে পাকুন্দিয়া-মঠখলা সড়কের থানা মোড়ে অবস্থান নিয়ে নতুন কমিটির বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়।

পরে দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে নেতারা দাবি করেন, কমিটিতে বিএনপি-জামায়াত থেকে আসা কর্মীদের অনুপ্রবেশসহ সংগঠনের দীর্ঘদিনের পোড় খাওয়া, ত্যাগী, পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হয়নি। সংবাদ সম্মেলনে সাবিকুল হাসান মুন্না, সাদ্দাম হোসাইন, নাদিম হোসেন ও রাকিবুল হাসান হৃদয় উপস্থিত ছিলেন। 

কমিটি প্রত্যাখান করে বিক্ষোভের প্রতিক্রিয়ায় কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. আনোয়ার হোসেন মোল্লা বলেন, “দীর্ঘদিন পর পাকুন্দিয়ায় একটি চমৎকার কমিটি দেওয়া হয়েছে। সবাইকে তো আর যার যার পছন্দমতো পদ এবং সন্তুষ্ট করা যায় না। সেজন্য অনেকে নানা মাধ্যমে নানা কথা বলে কমিটির বিরুদ্ধে কুৎসা রটনার চেষ্টা করছে। তবে সময়ে সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে।”

এদিকে দুধ দিয়ে গোসল করে ‘ছাত্ররাজনীতি থেকে ইতি টানার’ ঘোষণা দেওয়া ছাত্রলীগ নেতা আরমিন আহমেদ বলেন, “আমার দীর্ঘ ১২ বছরের নিঃস্বার্থ ছাত্ররাজনীতির কোনো মূল্যায়ন হয়নি। যিনি নতুন সভাপতি হয়েছেন তিনি আগে ছাত্রদল করতেন, তাই তার সঙ্গে আমি রাজনীতি করতে পারি না।“    

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক