নরসিংদীতে প্রকৌশলী হত্যায় ১০ জনের যাবজ্জীবন

২০১৭ সালের ১৬ অগাস্ট রাতে অফিস থেকে মোটরসাইকেলে বাসায় ফেরার পথে আল আমিনকে (২৭) হত্যা করে আসামিরা।

নরসিংদী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Feb 2024, 11:53 AM
Updated : 7 Feb 2024, 11:53 AM

নরসিংদীর বেলাব উপজেলায় প্রকৌশলীকে কুপিয়ে হত্যার পর মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের দায়ে ১০ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

বুধবার দুপুরে নরসিংদীর অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক শামীমা পারভীন দুই আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন বলে বাদীপক্ষের আইনজীবী খন্দকার হালিম জানান।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার মরিচাকান্দি গ্রামের রহুল আমিন ওরফে রাহুল (২১), একই গ্রামের মো. কাউছার মিয়া (২২), ভাটেরচর গ্রামের মো. হৃদয় মিয়া (২০), রুবেল (৩২), দুলালকান্দি গ্রামের রাকিবুল ইসলাম শুভ (২০), একই গ্রামের মাহিন (১৯), নোয়াকান্দি গ্রামের সাইদুল (৩০), ভৈরব উপজেলার দড়িচন্ডিবের এলাকার সুমন ওরফে সুন্দর সুমন (২৯), বাঁশগাড়ী (মানিকদী) গ্রামের আশাব উদ্দিন ওরফে শাকিল (৩০) ও রায়পুরা উপজেলার সাহেরচর গ্রামের রিপন (২৮)।

রায় ঘোষণার সময় শুধু মাহিন ও রাকিবুল উপস্থিত ছিলেন। বাকিদের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে।

মামলার বরাতে আইনজীবী বলেন, ২০১৭ সালের ১৬ অগাস্ট রাত সাড়ে ১০টায় নরসিংদীর বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্ল্যান ভিউ ফার্মের উপ-সহকারী প্রকৌশলী এবং রায়পুরার সাহেরচর গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে আল আমিন (২৭) অফিস শেষে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন।

পথে বেলাব উপজেলার দড়িকান্দি এলাকায় আসামিরা আল আমিনকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধ ও কুপিয়ে হত্যার পর তার মোটরসাইকেলটি নিয়ে যায়।

পরদিন নিহতের বাবা নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে বেলাব থানায় হত্যা মামলা করেন। পুলিশ ২০১৮ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ১০ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়। মামলার ১১ জন সাক্ষ্য দেন।

আইনজীবী বলেন, আদালত দণ্ডিত প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। আসামিদের মধ্যে আটজন পলাতক আছেন। এর মধ্যে তিনজন জামিন নিয়ে পালিয়েছেন।