‘ভারতে প্রবেশের চেষ্টা’, লালমনিরহাট সীমান্তে শিশুসহ আটক ৪ রোহিঙ্গা

আটকরা কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবির থেকে পালিয়ে এসেছে বলে ভাষ্য বিজিবির।

লালমনিরহাট প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 05:54 PM
Updated : 9 Feb 2024, 05:54 PM

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম সীমান্ত এলাকা দিয়ে ‘ভারতে প্রবেশের সময়’ শিশুসহ চার রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি।

আটকরা কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবির থেকে পালিয়ে এসেছে বলে ভাষ্য বিজিবির।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার দহগ্রাম সীমান্তের তিন বিঘা করিডোর এলাকা থেকে তাদের আটকের পর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান পাটগ্রাম থানার ওসি ফেরদৌস ওয়াহিদ।

আটকরা হলেন- আব্দুল্লাহ (২৪) ও তার স্ত্রী শরিফা বেগম (১৯) এবং তাদের ২৭ মাস ও ১৫ বছর বয়সি দুই মেয়ে। তারা উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প-২১, চাকমারকুল টেকনাফ ও কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১ ডাব্লিউ ব্লক এফ-১২ এর বাসিন্দা।

ওসি ফেরদৌস বলেন, শুক্রবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে ওই চার রোহিঙ্গাকে দহগ্রাম ইউনিয়ন সীমান্তের প্রধান পিলার ডিএএমপি ৭ নম্বরের উপ-পিলার ৩০ এর করিডোর পোস্ট এলাকার বাংলাদেশ অংশে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়।

পরে বিজিবি ৫১ ব্যাটালিয়নের ই-কোম্পানি দহগ্রাম ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার আব্দুল মান্নান মোল্লাসহ টহল দলের সদস্যরা তাদেরকে আটক করে সন্ধ্যায় পাটগ্রাম থানায় হস্তান্তর করেন বলে জানান তিনি।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালিয়ে দহগ্রাম সীমান্ত হয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করছিল বলে বিজিবির কাছে স্বীকার করেছেন বলে জানান ওসি।

এর আগে সোমবার দুপুরে কুচলিবাড়ি ইউনিয়নের পানবাড়ি সীমান্তের প্রধান পিলার ৮১২ নম্বরের কাছে ৩০ থেকে ৪০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঘোরাফেরা করার সময় রমিদা বেগম (২১) নামে এক রোহিঙ্গাকে আটক করে বিজিবি। পরদিন তাকে ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হয়।

নতুন করে আটক ওই চার রোহিঙ্গাকে নিজ ক্যাম্পে পাঠানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান ওসি ফেরদৌস।

আরও পড়ুন:

লালমনিরহাটে সীমান্ত থেকে রোহিঙ্গা নারী আটক