‘ডামি ভোটে’ ক্ষমতা দখল করে সরকার অহমিকা দেখচ্ছে: রিজভী

“আজকে ডামি নির্বাচন বাতিলের দাবিতে সকলকে এখন একত্রিত হয়ে রাজপথে নামতে হবে। আমরা সেই লক্ষ্যে লিফলেট কর্মসূচি শুরু করেছি,”বলেন রিজভী।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Feb 2024, 06:03 AM
Updated : 13 Feb 2024, 06:03 AM

‘প্রহসনের’ নির্বাচন করে সরকার এখন অহমিকা দেখাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রাজধানীর ফকিরাপুলে মঙ্গলবার সকালে লিফলেট বিতরণের কর্মসূচিতে তিনি বলেন, “আজকে প্রহসনের নির্বাচন, ডামি নির্বাচন, ৭ জানুয়ারি জনগণের প্রত্যাখাত নির্বাচন, সেই নির্বাচন করে তারা (সরকার) এখন আত্মঅহমিকা দেখাচ্ছে। তারা জোর করে তাদের দখলদারিত্ব ক্ষমতা মানুষের সামনে দেখাতে চাচ্ছে।

“এর বিরুদ্ধে মানুষ জেগে উঠেছে সরকারের পতনের লক্ষ্যে। এই সরকারের বিরুদ্ধে সবাই আজকে আন্দোলনে একসাথে। আজকে ডামি নির্বাচন বাতিলের দাবিতে সকলকে এখন একত্রিত হয়ে রাজপথে নামতে হবে। আমরা সেই লক্ষ্যে লিফলেট কর্মসূচি শুরু করেছি।”

ক্ষমতাসীন সরকারের পদত্যাগ ও দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন বাতিলের দাবিতে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার থেকে পাঁচ দিনের লিফলেট বিতরণের এই কর্মসূচি শুরু করেছে বিএনপি।

রাজধানীসহ দেশের মহানগর পর্যায়েও এই কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে বলে জানান রিজভী। সকালে পথচারী, ফুটপাতের দোকানদার ও যানবাহনের যাত্রীদের হাতে লিফলেট তুলে দেন এই বিএনপি নেতা।

‘দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও’ শিরোনামের এই লিফলেটে ৭ জানুয়ারির নির্বাচনকে ‘একতরফা’ আখ্যায়িত করে তা বাতিলের দাবি ছাড়াও সরকারের পদত্যাগ, নির্দলীয় সরকারের অধীনে অবাধ নির্বাচন, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন ও খালেদা জিয়াসহ রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির দাবির কথা বলা হয়েছে।

রিজভী কর্মসূচিতে বলেন, “শেখ হাসিনা আপনি বলেছেন- জিয়াউর রহমানের সময়ে সেনাবাহিনীতে নাকি অনেক দমন করা হয়েছে, অনেককে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে। সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে করলে তো সেখানে বিচার হবেই। জিয়াউর রহমান আইনি প্রক্রিয়ায় বিচার করেছেন।

“আর আপনি সামরিক কর্মকর্তাদের গায়েব করে দিয়েছেন, অদৃশ্য করে দিয়েছেন। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহিল আমান আযমী কোথায়? সে কি গায়েব হয়নি আপনার সরকারের সময়ে?”

রিজভী বলেন, “বাহাত্তার থেকে পঁচাত্তর সালে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে সিরাজ সিকদারসহ জাসদ ও বিরোধী দলের ভিন্নমতের ২০ হাজার নেতার্মীকে হত্যা করা হয়েছিল। একইভাবে এই সরকারের আমলে অসংখ্য নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। ইলিয়াস আলী, চৌধুরী আলমসহ অসংখ্য নেতাকর্মীকে গুম করা হয়েছে, অদৃশ্য করে দেওয়া হয়েছে।”

বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, যুব বিষয়ক সহ-সম্পাদক মীর নেওয়াজ আলী, আমিনুল ইসলাম, যুব দলের সাধারণ সম্পাদক মুনায়েম মুন্না, অঙ্গসংগঠনের আবুল কালাম আজাদ, আবদুর রহিম, আরিফা সুলতানা রুমা, নাদিয়া পাঠান পাপন, জাহিদুর রহমান, এজমল হোসেন পাইলট লিফলেট বিতরণের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।